Advertisement
২৩ জুলাই ২০২৪
C V Ananda Bose

রাজভবনে কী ঘটেছিল! মমতা এবং পুলিশ ছাড়া সবাইকে ফুটেজ দেখতে আমন্ত্রণ, কী উপায়ে আবেদন?

বুধবার রাজভবনের তরফে এক্স (সাবেক টুইটার) হ্যান্ডলে এ সংক্রান্ত একটি লিখিত ঘোষণা প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, বাংলার যে কোনও প্রান্তের মানুষ ওই সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে পারবেন।

গ্রাফিক— শৌভিক দেবনাথ।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ মে ২০২৪ ১৮:৫২
Share: Save:

বাংলার জনগণের আদালতেই নিজের বিচার চান বাংলার রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস। তাঁর বিরুদ্ধে রাজভবনের এক অস্থায়ী মহিলা কর্মীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ দায়ের হয়েছিল। যার প্রেক্ষিতে রাজ্যপালকে রাজভবনের সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করার চ্যালেঞ্জ জানিয়েছিল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল। বুধবার রাজভবন জানাল, ওই সিসিটিভি ফুটেজ তারা প্রকাশ করবে। তবে সবার জন্য নয়। রাজভবনের জারি করা বিবৃতি অনুযায়ী, ‘‘পশ্চিমবঙ্গের যে কোনও নাগরিক ওই সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে পারবেন। পারবেন না শুধু দুই পক্ষ— এক রাজনীতিবিদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং দুই তাঁর পুলিশ।’’

বুধবার রাজভবনের তরফে এক্স (সাবেক টুইটার) হ্যান্ডলে এ সংক্রান্ত একটি লিখিত ঘোষণা প্রকাশ করা হয়েছে। তাতে জানানো হয়েছে, একটি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ওই ফুটেজ দেখানো হবে। বাংলার যে কোনও প্রান্তের যে কোনও ইচ্ছুক নাগরিক ওই সিসিটিভি ফুটেজ দেখার জন্য নিজের নাম নথিভুক্ত করাতে পারেন। ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বয়ং রাজ্যপাল বোসই। অনুষ্ঠানের নাম ‘সচ কা সামনে’ যাঁর বাংলা তর্জমা ‘সত্যের মুখোমুখি হওয়া’।

রাজভবনের তরফে ওই ঘোষণায় বলা হয়েছে, এই ফুটেজ দেখানোর সিদ্ধান্ত এই জন্যই নেওয়া হয়েছে, যাতে এমনটা না মনে হয় যে, রাজভবন ওই সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ্যে আনতে চাইছে না। কিন্তু রাজভবন এবং রাজ্যপালের বিরুদ্ধে ওঠা ‘অসত্য’ অভিযোগ নিয়ে রাজনীতিবিদ মমতা এবং তাঁর পুলিশ যে অবস্থান নিয়েছে, তাতে তাঁদের ওই ফুটেজ দেখানো হবে না।

রাজভবনের তরফে জানানো হয়েছে, যাঁরা ওই সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে চান, তাঁরা রাজভবনে ইমেল পাঠাতে পারেন। adcrajbhavankolkata@gmail.com এবং governor-wb@nic.in –এ। অথবা রাজভবনের নম্বর ০৩৩-২২০০১৬৪১-এ ফোন করেও নাম নথিভুক্ত করাতে পারেন। প্রথম ১০০ জন রাজভবনের ভিতরে ওই ফুটেজ দেখার সুযোগ পাবেন। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় রাজভবনে দেখানো হবে ওই সিসিটিভি ফুটেজ।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার (২ মে) রাতে রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ তুলে হেয়ার স্ট্রিট থানায় রিপোর্ট লিখিয়েছেন এক মহিলা। নিজেকে রাজভবনের অস্থায়ী কর্মী বলে পরিচয় দিয়ে পুলিশকে তিনি জানান, রাজভবনে দু’বার শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছেন তিনি। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই বাংলার রাজ্যপালের নিন্দায় সরব হয় তৃণমূল। অন্য দিকে পুলিশও রাজ্যপালকে রাজভবনের সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশ করতে বলে।

পরে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যাপাল প্রসঙ্গে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করে বলেন, ‘‘আপনি সন্দেশখালি নিয়ে সন্দেশ দিয়ে বেড়াচ্ছেন, সন্দেশখালি নিয়ে বলার আগে আপনি বলুন রাজ্যপাল কেন তাঁর কাজের মেয়েকে, কেন তাঁর ঘরে কাজ করে বলে এক বার নয়, পর পর দু’বার মলেস্ট করেছেন?’’

গত শুক্রবার এই আক্রমণ আরও এক ধাপ চড়িয়ে মমতা বলেন, ‘‘একটা ছোট্ট মেয়ে রাজভবনে চাকরি করত। তার সঙ্গে কী ব্যবহার করেছেন মাননীয় রাজ্যপাল মহাশয়? কালকে মেয়েটির কান্না আমার হৃদয় বিদারণ করেছে। রাজ্যপাল মেদিনীপুর পূর্বের একটি মেয়েকে রাজভবনে এক বার নয়, পর পর দু’বার মলেস্ট করেছেন। সেখানেই তো আপনি কাল থেকে এলেন। কই, একটা কথাও তো মুখ দিয়ে কাল বললেন না। আপনার লোকজনেরাও তো তখন ছিল, যখন মেয়েটি কেঁদে বেরোচ্ছিল। সে বলেছে, ‘আর আমি রাজভবনে চাকরি করতে যাব না।’ ভয় পাচ্ছে। ভাবছে যখন-তখন ডেকে খারাপ ব্যবহার করবে। অসম্মান করবে। আর আপনি মা-বোনেদের নিয়ে কথা বলেন, আপনার লজ্জা নেই!’’

তৃণমূলের তরফেও রাজ্যপালকে সিসিটিভি ফুটেজ প্রকাশের ব্যাপারে চ্যালেঞ্জ করা হয়। এর মধ্যে রাজ্যপাল কলকাতা ছেড়ে কোচি চলে যান। তবে অভিযোগ দায়েরের ছ’দিনের মাথায় এ বার জবাবও দিলেন রাজ্যপাল বোস। এখন দেখার, বৃহস্পতিবার রাজভবনের সিসিটিভি ফুটেজে কী দেখা যায়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

West Bengal Governor
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE