Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Sovan-Ratna-Baisakhi: আমার বাড়ি জবরদখল করে রেখেছেন রত্না, বৈশাখীর মন্তব্যে শোভন পত্নীর পাল্টা, এ ভাবেই থাকব

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৭ নভেম্বর ২০২১ ২০:৪৮
বেহালা পর্ণশ্রীর বাড়ি নিয়ে ফের রত্না-বৈশাখীর বাকযুদ্ধ।

বেহালা পর্ণশ্রীর বাড়ি নিয়ে ফের রত্না-বৈশাখীর বাকযুদ্ধ।
ফাইল ছবি

তাঁর বাড়ি জবরদখল করে রেখেছেন রত্না চট্টোপাধ্যায়। এমনটাই অভিযোগ করলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় পুরভোটে দাঁড়ানোর টিকিট পেয়েছেন রত্না। ঠিক তার পর দিনই রত্নাকে বাড়ি ছাড়ার নোটিস আবারও ধরিয়েছেন বৈশাখী। সেই নোটিসকে বিশেষ আমল দিতে চায়নি চট্টোপাধ্যায় পরিবার। রত্না বরাবর দাবি করে এসেছেন বাড়িটি চট্টোপাধ্যায় পরিবারের পৈত্রিক সম্পত্তি। তাই আইনগতভাবে বাড়িটি বিক্রি করতে পারেন না শোভন। কিন্তু বৈশাখী দাবি করেছেন, ‘‘আমার কেনা বাড়ি পৈত্রিক সম্পত্তি বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন রত্না। এটি শোভনের পৈত্রিক সম্পত্তি নয়।’’

আনন্দবাজার অনলাইনকে বৈশাখী বলেন, ‘‘রত্না ভোটের হলফনামায় ৩৬ ইন্দিরা দেবী রোডের বাড়িটিকে নিজের বাপের বাড়ি হিসেবে দেখিয়েছেন। যেখানে উনি বিয়ের পর এসেছিলেন। আর ১৩৯ডি/৪ ঠিকানায় শোভনবাবু নিজে জমি কিনে বাড়ি করেছেন। তাই ওই বাড়ি বিক্রির সিদ্ধান্ত শোভনবাবুর। আইনত ওই বাড়ি আমি কিনেছি, আমার বাড়ি উনি জবরদখল করে রেখেছেন।’’ রত্নাকে খোঁচা দিতেও ছাড়েননি বৈশাখী। রত্নার ভোটে দাঁড়ানোর বিষয়টি উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘‘নির্বাচনী কার্যালয় যদি নিজের বাড়িতে না হয়ে অন্যের বাড়িতে হয়, তা হলে তা সমাজের জন্য ভাল উদাহারণ নয়।’’

বৈশাখীর এ সব মন্তব্যের জবাবে বেহালা পূর্বের বিধায়ক তথা ১৩১ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী রত্না বলেন, ‘‘আমি এ ভাবেই থাকব। কারও ক্ষমতা থাকলে আমাকে আমার বাড়ি থেকে বের কর দেখাক। উনি সব কিছু আইনগত ভাবে ঠিক কাজ করছেন, আর আমি সব আইনবিরুদ্ধ কাজ করছি— এটাই ওঁর বক্তব্য। তাই সব কিছুর জবাব আইনতই দেব।’’

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement