×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

প্র্যাক্টিক্যাল হবে কী ভাবে, প্রশ্ন ছাত্র-শিক্ষকদের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা০১ ডিসেম্বর ২০২০ ০৪:৩৪
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

এ বছরের মতো রাজ্যে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় যে আর খুলছে না এবং অন্যান্য সিমেস্টারের সঙ্গে প্রথম সিমেস্টারের ক্লাসও যে অনলাইনে হবে, উপাচার্যদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের রবিবারের বৈঠকে সেটা চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছে ঠিকই। কিন্তু শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীদের প্রশ্ন, প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস হবে কী ভাবে? শিক্ষা শিবিরের খবর, অনলাইনে কী করে প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস নেওয়া হবে, সেই প্রশ্ন শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে উপাচার্যদের বৈঠকেও উঠেছিল। তবে এই বিষয়ে আলোচনা তেমন এগোয়নি।

বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় অবশ্য নিজেদের মতো পন্থা বার করার চেষ্টা শুরু করেছে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় সোমবার তাদের কলেজগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে, অনলাইনে স্নাতক প্রথম সিমেস্টারের ক্লাস ১৬ ডিসেম্বর শুরু করে দিতে হবে। বেশ কয়েক জন অধ্যক্ষ জানান, প্রথম সিমেস্টারে কোনও প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস না-করিয়ে শুধু থিয়োরিটিক্যাল পড়াশোনাই চালাতে হবে। সাইবার-সরণিতে ক্লাস শুরু করে দেওয়ার চিন্তাভাবনা চলছে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়েও। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুরঞ্জন দাস জানান, তাঁরা ডিসেম্বরের মাঝামাঝি অনলাইনে ক্লাস শুরু করে দেওয়ার কথা ভাবছেন। প্রথম
সিমেস্টারের অনলাইন ক্লাসে প্র্যাক্টিক্যাল থাকবে না। পরের সিমেস্টারে তা করানো হবে। তবে শিক্ষা শিবির সূত্রের খবর, যাদবপুরে বিজ্ঞান শাখায় এখন অন্তর্বর্তী সিমেস্টারের যে-সব ক্লাস চলছে, সেখানে থিয়োরিটিক্যালের পাশাপাশি প্র্যাক্টিক্যালের জন্য ডেটা দেওয়া হচ্ছে পড়ুয়াদের। ভিডিয়ো-সম্মেলনের মাধ্যমে পরীক্ষানিরীক্ষা চালানোর চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস থাকে মূলত বিজ্ঞান, ইঞ্জিনিয়ারিং ললিতকলা ইত্যাদি বিষয়ে। ম্যাকাউট বা রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইতিমধ্যেই তৈরি হয়ে গিয়েছে ভার্চুয়াল ল্যাবরেটরি। প্র্যাক্টিক্যালের জন্য তাঁদের বিশেষ ভাবনা নেই বলে জানান উপাচার্য সৈকত মৈত্র। তবে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সব্যসাচী বসু রায়চৌধুরী বলেন, ‘‘ললিতকলার পঠনপাঠনে প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস খুব গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু পরিস্থিতি যা, তাতে প্রথম সিমেস্টারে প্র্যাক্টিক্যাল ক্লাস রাখা সম্ভব হবে না বলেই মনে হচ্ছে।’’ তিনি জানান, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরে প্রথম সিমেস্টারের ক্লাস কবে চালু হবে, সব পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে তাঁরা সেটা স্থির করবেন। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দেবজ্যোতি কোনার এ দিন জানান, স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের প্রথম সিমেস্টারের অনলাইন ক্লাস শুরুর দিনক্ষণ-সহ পুরো বিষয়ে আলোচনার জন্য তাঁরা আজ, মঙ্গলবার বৈঠকে বসছেন।

Advertisement

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে উপাচার্যদের বৈঠকে ঠিক হয়েছে, স্নাতক স্তরে যে-সব কলেজে এখনও কিছু আসন শূন্য পড়ে আছে, সেগুলি পূরণের জন্য নতুন করে অনলাইনে ভর্তির আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু করতে হবে। এই প্রক্রিয়া শেষ করে দিতে হবে ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে। এ দিন উচ্চশিক্ষা দফতর এই বিষয়ে বিজ্ঞপ্তিও জারি করেছে। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় তার পরেই ১৬ তারিখ থেকে অনলাইনে কলেজের প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরুর কথা জানিয়ে দেয়। বারাসত রাষ্ট্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, ১৬ তারিখের পরে তাদেরও স্নাতক স্তরের ক্লাস শুরু হয়ে যাবে।

Advertisement