Advertisement
২০ এপ্রিল ২০২৪
Sandeshkhali Row

সন্দেশখালিতে নাটক পরতে পরতে, তাড়া খেয়ে অজিত ঢুকে পড়ায় নেমন্তন্ন খাওয়া আটকে গ্রামবাসীর

অজিত মাইতির দাবি, তিনি কোনও দোষ করেননি। তাঁকে ২০১৯ সালে বিজেপি থেকে মারধর করে তৃণমূলে এনেছিলেন সিরাজ ডাক্তার। যদিও স্থানীয়দের দাবি, অজিত তাঁদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছেন।

তৃণমূল নেতা অজিত মাইতি।

তৃণমূল নেতা অজিত মাইতি। — ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
সন্দেশখালি শেষ আপডেট: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৫৮
Share: Save:

রবিবারও সন্দেশখালির অশান্তি কমার লক্ষণ নেই। বেড়মজুরে তৃণমূলের স্থানীয় নেতা অজিত মাইতিকে তাড়া করেন গ্রামবাসীরা। অজিত দৌড়ে পালিয়ে একজনের বাড়িতে ঢুকে পড়েন। তাড়া করে সেখানে পৌঁছে যান গ্রামবাসীরা। বিক্ষোভকারীদের মধ্যে বেশির ভাগই মহিলা। তাঁদের দাবি, এখনই গ্রেফতার করতে হবে অজিতকে। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

রবিবার সকালে বেড়মজুরে একটি হরিনাম সংকীর্তনের আসরে গিয়েছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী— সুজিত বসু এবং পার্থ ভৌমিক। তাঁরা এলাকাবাসীর কাছে অভাব, অভিযোগ শুনবেন বলে জানিয়েছিলেন। বেলা গড়াতে সেই এলাকাতেই গ্রামবাসীদের তাড়া খেলেন স্থানীয় তৃণমূল নেতা অজিত। রবিবার বেলায় অজিতকে দেখতে পেতেই খেপে ওঠেন গ্রামবাসীরা। তাঁরা ধাওয়া করেন অজিতকে। অজিত প্রাণ বাঁচাতে দৌড় লাগান। দৌড়ে এক ব্যক্তির বাড়িতে ঢুকে পড়েন তিনি। আর ঢুকেই দরজায় তালা মেরে দেন। এ দিকে ওই বাড়ির লোক তখন বাইরে স্নান করছিলেন। স্নান সেরে ঘরে ঢুকতে গিয়ে তিনি দেখেন, দরজায় তালা! ওই ব্যক্তির দাবি, নিমন্ত্রণ আছে বলে সকাল সকাল স্নান সেরে পোশাক পরতে ঘরে ঢুকতে গিয়ে দেখেন দরজায় তালা! আর ভিতর থেকে অজিতের আর্তি, ‘‘দাদা, দরজা খুলবেন না! ওরা আমাকে মেরে ফেলবে!’’

অজিতের দাবি, তাঁকে ২০১৯ সালে মারধর করে বিজেপি থেকে তৃণমূলে আনা হয়েছিল। মারধরের নেতৃত্বে ছিলেন সিরাজ ডাক্তার। অজিতের দাবি, মারধরের পর তিনি তৃণমূলে যোগ দেন। যদিও স্থানীয়দের অভিযোগ, অসত্য বলছেন অজিত। তিনি নিজেও জমি দখলে যুক্ত ছিলেন। তাই তাঁকে এখনই গ্রেফতার করতে হবে। অজিতের অবশ্য দাবি, দল বললে তিনি পদত্যাগ করতেও রাজি।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল মন্ত্রী পার্থকে। তিনি বলেন, ‘‘কারও বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যাঁরা অত্যাচার করেছেন, দল তাঁদের পাশে নেই।’’ অজিতকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

TMC Sk Shahjahan
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE