Advertisement
১৬ জুলাই ২০২৪
TMC

সিঙ্গুরে ৩৫ বছর বামেদের দখলে থাকা সমবায় ছিনিয়ে নিল তৃণমূল, ‘ছাপ্পা ভোট’ নিয়ে সরব বিরোধী প্রার্থীরা

বামেদের দাবি, তৃণমূল ভোট লুট করেছে। পুলিশের সামনেই ছাপ্পা ভোট হয়েছে। তাতে বাধা দিতে গেলে দলীয় প্রার্থী দেবাশিস মুখোপাধ্যায়কে মারধরও করা হয়। তিনি সিঙ্গুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

—ফাইল চিত্র

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
সিঙ্গুর শেষ আপডেট: ২৩ জুন ২০২৪ ২০:৪৫
Share: Save:

সিঙ্গুরে ৩৫ বছর ধরে বামেদের দখলে থাকা সমবায় ছিনিয়ে নিল শাসকদল তৃণমূল। গোবিন্দপুর সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতি লিমিটেডের নির্বাচনে সব ক’টি, অর্থাৎ ৪৫টি আসনেই জেতে তারা। একটিও আসন পেল না বামেরা। তাদের দাবি, পুলিশের সামনে বুথ জ্যাম করে ছাপ্পা ভোট করিয়েছে শাসকদল। বিরোধী প্রার্থীদের মারধরও করা হয়েছে বলে অভিযোগ। যদিও তা অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

গোবিন্দপুর সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতি ১৯৮৯ সাল থেকে বামেদের দখলে। এই সমবায়ে মোট ভোটার ২২৬৫ জন। তৃণমূল ও বামেরা সব আসনেই প্রার্থী দিয়েছিল। বিজেপি প্রার্থী দিয়েছিল ১২টি আসনে। রবিবার কড়া নিরাপত্তায় ভোটগ্রহণ হয়। বিকেলে ফলপ্রকাশের পর দেখা যায়, সব ক’টি আসনেই জিতেছেন তৃণমূল সমর্থিত প্রার্থীরা। জয়ের পরে সিঙ্গুরের তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী বেচারাম মান্না বলেন, ‘‘৩৫ বছর পর বামেদের হাত থেকে সমবায় ছিনিয়ে নিলাম। বাম-বিজেপি রামধনু জোট করেও কিছু করতে পারেনি।’’

বামেদের দাবি, তৃণমূল ভোট লুট করেছে। পুলিশের সামনেই ছাপ্পা ভোট হয়েছে। তাতে বাধা দিতে গেলে দলীয় প্রার্থী দেবাশিস মুখোপাধ্যায়কে মারধরও করা হয়। তিনি সিঙ্গুর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। দেবাশিস বলেন, ‘‘তৃণমূল বহিরাগতদের দিয়ে যে ভাবে ছাপ্পা দিয়ে গেল, যে ভাবে আমাকে মারধর করল, তা ন্যক্কারজনক।’’

পাল্টা তৃণমূল নেতা গোবিন্দ ধাড়া অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘‘এমন কিছুই হয়নি। ওরা ভোট কম পেয়েছে বলে এ সব বলছে। আমিও তো আধ ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিলাম।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

TMC
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE