Advertisement
২০ জুন ২০২৪
Diamond Harbour

TMC: নেশার ঠেকের প্রতিবাদ, ডায়মন্ড হারবারে গুলিবিদ্ধ ফুটবলার তথা তৃণমূলকর্মী

শুক্রবার সন্ধ্যায় ডায়মন্ড হারবারে গুলিচালনার ঘটনায় অভিযুক্ত সৌরীশ দে, বুদ্ধদেব চিত্রকর এবং রাজেশ পাণ্ডেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গুলিবিদ্ধ বিশাল খেয়ারি।

গুলিবিদ্ধ বিশাল খেয়ারি। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
ডায়মন্ড হারবার শেষ আপডেট: ১৭ ডিসেম্বর ২০২১ ১৯:৪৬
Share: Save:

সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গড় ডায়মন্ড হারবারে এক তৃণমূলকর্মী তথা ফুটবলারকে গুলি করার অভিযোগ উঠল শাসকদলেরই তিন যুবকের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, মদ-গাঁজার আসরের প্রতিবাদ করায় তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় তৃণমূলআশ্রিত দুষ্কৃতীরা। শুক্রবার সন্ধ্যায় ডায়মন্ড হারবার পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের এই ঘটনায় গুলিবিদ্ধ যুবককে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় অভিযুক্ত সৌরীশ দে, বুদ্ধদেব চিত্রকর ওরফে ডোঙা এবং রাজেশ পাণ্ডে নামে তিন যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি তুলেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তবে একে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব বলে দাবি করেছে বিজেপি।

পুলিশ সূত্রে খবর, শুক্রবার ডায়মন্ড হারবার পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের রেল কলোনি সংলগ্ন মাঠে গুলিচালনায় গুরুতর জখম হয়েছেন বিশাল খেয়ারি নামে এক যুবক। এলাকায় প্রতিবাদী হিসাবে পরিচিত বিশালের ফুটবলার হিসাবেও নামডাক ছিল। তাঁর ডান পায়ে গুলি লেগেছে। আহত বিশাল বলেন, ‘‘প্রকাশ্যে বন্দুক দেখানোয় ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। ওদের অনুরোধ করেছিলাম আমাকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য। কিন্তু আমার কথা শোনেনি৷ ডান পায়ে গুলি চালিয়ে দেয়। এর নায্য বিচার চাই।’’

শুক্রবার ঘটনার খবর পেয়ে গুরুতর জখম অবস্থায় বিশালকে ডায়মন্ড হারবার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায় পুলিশ। স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের দাবি, অভিযুক্ত দুষ্কৃতীরাও তৃণমূল সমর্থক। যদিও পুলিশ সূত্রে এই দাবির সমর্থন পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়দের আরও অভিযোগ, দিনের পর দিন রেল কলোনির মাঠে মদ-গাঁজার আসর বসত। শুক্রবার সন্ধ্যাও ওই মাঠে মদ-গাঁজার আসর বসিয়েছিল দুষ্কৃতীরা। সে সময় ওই আসরের প্রতিবাদ করতে মাঠে যান তৃণমূলকর্মী বিশালের বাবা। তবে তাঁর সঙ্গে বচসা শুরু হয় দুষ্কৃতীদের। অভিযোগ, সে সময় বাবাকে ডাকতে যান বিশাল। সে সময় বিশালকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় বুদ্ধদেব এবং সৌরীশ-সহ কয়েক জন। তাতে বিশালের ডান পায়ে গুলি লাগে। ঘটনার পর স্থানীয়দের একাংশ সৌরীশকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন। গণপিটুনি দিয়ে তাঁকে পুলিশের হাতে তুলে দেন। তবে বাসিন্দারা জানিয়েছেন, অভিযুক্তরাও শাসকদলের সমর্থক। ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এই ঘটনায় অভিযুক্তেরা শাসকদলের বলে অভিযোগ উঠলেও টাউন যুব তৃণমূলের যুগ্ম আহ্বায়ক সৌমেন তরফদার বলেন, ‘‘আক্রান্ত বিশাল খুবই ভাল ছেলে। সম্প্রতি এমপি কাপে ফুটবলও খেলেছিল। বরাবর অসামাজিক কাজের প্রতিবাদ করত। এ বার তা করতে গিয়েই গুলিবিদ্ধ হল। প্রশাসনের কাছে অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’’

যদিও বিরোধীদের অভিযোগ, শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই এ ঘটনা ঘটেছে। বিজেপি-র ডায়মন্ড হারবার সাংগঠনিক জেলার সহ-সভাপতি সুফল ঘাঁটু বলেন, ‘‘পুরভোটের আগেই উত্তপ্ত এই পুরসভা এলাকা। অনেক টাকা খরচ করে শহরে এমপি কাপের খেলা হয়। কিন্তু মানুষের নিরাপত্তাহীনতার ছবি কি সাংসদ অভিষেক জানেন! আশা করব, পুলিশ-প্রশাসন এই ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত করবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE