Advertisement
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Giriraj Comment Issue

নাচ-মন্তব্যের জবাবে নাচ! ‘ঠুমকা’র পাল্টা টুসুর সুর, গিরিরাজকে ধিক্কার জানিয়ে সমবেত নৃত্যে চন্দ্রিমা, শশী

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহের মন্তব্যের প্রতিবাদে দিল্লি থেকে কলকাতা— বিক্ষোভ দেখাল তৃণমূল। হাজরায় মহিলা তৃণমূলের প্রতিবাদ গানের সুরে, নাচের তালে।

হাজরায় বিক্ষোভ মহিলা তৃণমূলের।

হাজরায় বিক্ষোভ মহিলা তৃণমূলের। — নিজস্ব চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৮:৪৩
Share: Save:

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্পর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংহ অপ্রীতিকর মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগ তুলে দিল্লিতে তৃণমূল সাংসদেরা সংসদ চত্বরে বিক্ষোভ দেখান। রাজ্য বিধানসভাতেও বিক্ষোভ দেখান দলের বিধায়কেরা। এর পাশাপাশি, কলকাতার হাজরা মোড়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি নেয় তৃণমূল মহিলা কংগ্রেস। সেখানে হাজির ছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এবং শশী পাঁজা। শুধু বিজেপির বিরুদ্ধে স্লোগান তোলাই নয়, গিরিরাজকে ধিক্কার জানাতে আদিবাসী গানের সুরে গান গেয়ে নাচলেন তৃণমূলের নেত্রীরা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ক্ষমা না চাইলে, তৃণমূলের প্রতিবাদ আন্দোলন যে আরও তীব্র হবে তা-ও স্পষ্ট করে দিয়েছেন চন্দ্রিমারা।

কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনী মঞ্চে মমতার নাচে অংশ নেওয়া নিয়ে বুধবার মন্তব্য করেছিলেন কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী। বলেছিলেন, ‘‘গোটা বাংলা যখন দুর্নীতিতে আক্রান্ত, তখন মুখ্যমন্ত্রী মঞ্চে ‘ঠুমকা’ নাচছেন।’’ এক জন মহিলা মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর এই মন্তব্যের জেরে বৃহস্পতিবার লোকসভার পাশাপাশি, উত্তাল হয় রাজ্য বিধানসভাও। একই সঙ্গে মন্ত্রীকে ক্ষমা চাইতে হবে দাবি জানিয়ে কলকাতায় প্রতিবাদ মিছিল করে তৃণমূল। বৃহস্পতিবার দুপুরে হাজরায় নাচের মাধ্যমেই গিরিরাজের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানান মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, শশী পাঁজা-সহ তৃণমূল মহিলা কংগ্রেসের প্রতিনিধিরা। প্রত্যেকের কপালেই কালো কালিতে ‘ধিক্কার’ লেখা পোস্টার ছিল। গলাতেও ঝুলিয়ে নেন ধিক্কার জানানোর পোস্টার। সেখানে মন্ত্রী চন্দ্রিমা বলেন, “এক জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাংলার মুখ্যমন্ত্রী তথা এক জন নারী সম্পর্কে যে ধরনের ভাষা ব্যবহার করেছেন, সেটা দেশের সংস্কৃতির সঙ্গে খাপ খায় না।’’ একই সঙ্গে চন্দ্রিমা বলেন, ‘‘দেখি মন্ত্রীর ঘুম ভাঙে কি না, ক্ষমা চান কি না। না হলে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ করব।”

ওই বিক্ষোভ সমাবেশেই গানের সুরে সুরে নেচে গিরিরাজের মন্তব্যের প্রতিবাদ জানান চন্দ্রিমারা। গ্রামাঞ্চলের বিভিন্ন উৎসবে যে ভাবে টুসু গানের সুরের সঙ্গে নাচ হয়, তেমন ভাবেই আদিবাসী ভঙ্গিতে নাচেন তৃণমূলের মহিলা শাখার প্রতিনিধিরা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE