×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

প্রতিষেধক না নেওয়ার অধিকার রয়েছে আমার, বলসোনারোর মন্তব্যে ফের বিতর্ক

সংবাদ সংস্থা
ব্রাসিলিয়া২৭ নভেম্বর ২০২০ ১৩:৩৬
—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

কোভিড প্রতিষেধকের অপেক্ষায় দিন গুনছে গোটা বিশ্ব। নিজের দেশেও সম্ভাব্য প্রতিষেধকের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে। কিন্তু তিনি নিজে কোনও প্রতিষেধক নেবেন না। জানিয়ে দিলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। প্রতিষেধক না নেওয়ার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিবৃতি দিতে গিয়ে বৃহস্পতিবার নিজের অবস্থান জানান বলসোনারো। সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘‘সাফ জানিয়ে দিচ্ছি, আমি কোনও প্রতিষেধক নেব না। এটা আমার অধিকারের মধ্যে পড়ে।’’ শুধু তাই নয়, মাস্কের কার্যকারিতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি। সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে মাস্ক আদৌ সক্ষম কি না, তা নিয়েও সন্দেহ প্রকাশ করেন।

কোভিডের প্রকোপে মৃত্যুর নিরিখে এই মুহূর্তে বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে ব্রাজিল। এখনও পর্যন্ত ১ লক্ষ ৭১ হাজার ৪৬০ রোগীর মৃত্যু হয়েছে সেখানে। জুলাই মাসে বলসোনারো নিজেও করোনায় আক্রান্ত হন। তিন-তিন বার তাঁর কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

Advertisement

আরও পড়ুন: হোয়াইট হাউস ছেড়ে দেবেন জানালেন ডোনাল্ড ট্রাম্প, তবে দিলেন শর্তও​

তা সত্ত্বেও বারবর করোনার জেরে উদ্ভূত অতিমারি নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে বলসোনারোকে। বলেছেন, ছোটখাটো ফ্লু বই অন্য কিছু নয়, করোনা নিয়ে এত মাথাব্যথার কিছু নেই, ব্রাজিলের নাগরিকদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এতই বেশি যে খোলা নর্দমায় সাঁতার কাটলেই কিচ্ছু হবে না।

আরও পড়ুন: দৈনিক সংক্রমণ ও মৃত্যু কমলেও দেশে বাড়ল সক্রিয় রোগীর সংখ্যা​

প্রতিষেধক যদি দিতেই হয়, তাহলে তাঁর বাড়ির কুকুরকে দিতে হবে বলে অক্টোবর মাসে টুইটারেও লেখেন বলসোনারো। তার জন্য তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল তাঁকে। তাই বৃহস্পতিবার তাঁর মন্তব্য সামনে আসার পর নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে। দেশের প্রধান হিসেবে একেবারেই দায়িত্বজ্ঞানহীন বলে একমত সকলেই।

Advertisement