×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

চিনে ব্রহ্মপুত্রের উপর তৈরি হচ্ছে জলবিদ্যুৎ প্রকল্প, চাপ বাড়ছে ভারতের

সংবাদ সংস্থা
বেজিং ৩০ নভেম্বর ২০২০ ১২:৪২
এর আগে ভারত বারবার চিনের সরকারকে অনুরোধ করেছে, নদীর উচ্চগতিতে যেন এমন কিছু বানানো না হয়, যাতে নিম্নগতির  কোনও ক্ষতি হয়।

এর আগে ভারত বারবার চিনের সরকারকে অনুরোধ করেছে, নদীর উচ্চগতিতে যেন এমন কিছু বানানো না হয়, যাতে নিম্নগতির কোনও ক্ষতি হয়।

চিনের ব্রহ্মপুত্র নদ, অর্থাৎ ‘ইয়ারলুং জ্যাংবো’ নদীতে বিশাল জলবিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্প শুরু করতে চলেছে সে দেশ। বেজিংয়ের ১৪তম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার অংশ হিসাবে এই প্রকল্প বাস্তবায়িত করা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। চিনের সরকারি সংবাদ মাধ্যম সূত্রে এই খবর পাওয়া গিয়েছে। স্বাভাবিক কারণে, এই সিদ্ধান্তে চিন্তা বাড়তে পারে ভারতের। কারণ, নদের সমতল যাত্রাপথের বেশিরভাগটাই ভারতের মধ্যে দিয়ে বয়ে চলেছে। ফলে নদীর উচ্চগতিতে পরিবর্তন এলে বা কোনও বাধা তৈরি হলে নিম্নগতির পরিবর্তন হতেই পারে। তাতে ব্রহ্মপুত্র-নির্ভর মানুষেরা নানা সমস্যায় পড়তে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে।

চিনের শক্তি উৎপাদন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান চিনা সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, নদের নিম্ন গতিপথের শুরুতেই একটি বিদ্যুৎ উৎপাদন প্রকল্পের পরিকল্পনা রয়েছে। যেটি দেশের একাধিক অংশের মূল জল সরবাহের উৎস হয়ে দাঁড়াবে। তেমনই বিদ্যুৎ সরবরাহ ও নিরাপত্তাতেও সাহায্য করবে। চিনের শক্তি উৎপাদনের ইতিহাসে এটি একটি মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে দাবি তাঁর।

আরও পড়ুন : ইন্দোনেশিয়ায় জেগে উঠল ভয়ঙ্কর আগ্নেয়গিরি! চার কিলোমিটার ঢেকে গেল কালো ধোঁয়ায়

Advertisement

এর আগে ভারত বারবার চিনের সরকারকে অনুরোধ করেছে, নদীর উচ্চগতিতে যেন এমন কিছু বানানো না হয়, যাতে নিম্নগতির কোনও ক্ষতি হয়। সেই কারণেই ব্রহ্মপুত্র নদের উপর বাঁধ বানানো নিয়ে চিরকালই কৌতূহল প্রকাশ করছে। এর আগেও ব্রহ্মপুত্রের উপর প্রকল্প তৈরির কথা হয়েছিল। কিন্তু ভারত বাংলাদেশে জল সরবরাহের কী হবে, তাই নিয়ে চিন্তায় আছে ভারত।

আরও পড়ুন : কমল সক্রিয় রোগী, মৃত্যুও, দৈনিক সংক্রমণ নামল ৩৯ হাজারের নীচে

Advertisement