Advertisement
০৮ ডিসেম্বর ২০২২

নজর রাখছি, বলছেন সালভে

লন্ডনে ভারতীয় হাইকমিশনে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বললেন, ‘‘আমি আনন্দিত। খুব কম সময়ের মধ্যেই কুলভূষণকে মৃত্যুদণ্ড থেকে বাঁচিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত। যে ভাবে তারা হস্তক্ষেপ করেছে, তার জন্য দেশের হয়ে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’’

ভারতের প্রধান কৌঁসুলি হরিশ সালভে।

ভারতের প্রধান কৌঁসুলি হরিশ সালভে।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ও লন্ডন শেষ আপডেট: ১৮ জুলাই ২০১৯ ০২:৪৮
Share: Save:

সুতোয় ঝুলতে থাকা কুলভূষণ যাদবের জীবনকে বারবার ভরসা জুগিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালতে তাঁর সওয়াল। আজকের রায়ের পরে আদালতকে কৃতজ্ঞতা জানালেন ভারতের প্রধান কৌঁসুলি হরিশ সালভে। লন্ডনে ভারতীয় হাইকমিশনে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বললেন, ‘‘আমি আনন্দিত। খুব কম সময়ের মধ্যেই কুলভূষণকে মৃত্যুদণ্ড থেকে বাঁচিয়েছে আন্তর্জাতিক আদালত। যে ভাবে তারা হস্তক্ষেপ করেছে, তার জন্য দেশের হয়ে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।’’

Advertisement

চরবৃত্তির দায়ে ধৃত প্রাক্তন ভারতীয় নৌসেনা কুলভূষণের মৃত্যুদণ্ডাদেশ পুনর্বিবেচনার পাশাপাশি ভারতীয় দূতাবাসের কর্মীদের সঙ্গে তাঁকে দেখা করতে দিতে বলেছে আদালত। সালভের কথায়, ‘‘পাকিস্তানের সংবিধান মেনে কুলভূষণের ন্যায্য বিচার করতে বলেছে আন্তর্জাতিক আদালত। পাকিস্তান যদি আবার সামরিক আদালতেই ফিরে যায়, তা হলে কিন্তু সেটা এই আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী কাজ হবে না। কারণ সামরিক আদালতে বাইরের আইনজীবীদের ঢুকতেই দেওয়া হয় না, কোনও প্রমাণও তুলে ধরা হয় না।’’

কিন্তু পাকিস্তান কি এতটা নরম হবে? সালভের বক্তব্য, ‘‘আন্তর্জাতিক আদালত বলেছে, বেআইনি কাজ করেছে পাকিস্তান। আমরা আশা করব, (কুলভূষণের) ন্যায্য বিচার নিশ্চিত করতে যা প্রত্যাশিত, তা তারা করবে। প্রয়োজনে আইন সংশোধন করবে। পাকিস্তানের দিকে আমাদের নজর রইল। তারা আবার যদি কোনও প্রহসনের মতো পদক্ষেপ করে, তা হলে আমরা আদালতে ফিরে যাব।’’ পাকিস্তান রায় না-মানলে প্রয়োজনে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের মাধ্যমে নিষেধাজ্ঞা চাপানোর রাস্তাও খোলা আছে বলে জানান তিনি।

পাক বিদেশ মন্ত্রক অবশ্য বলেছে, তারা আইন মেনেই পদক্ষেপ করবে। তবে কুলভূষণের শাস্তি খারিজ করে তাঁকে অবিলম্বে দেশে ফেরত পাঠানোর আর্জি যে আন্তর্জাতিক আদালত খারিজ করেছে, সেই বিষয়টিও বিবৃতিতে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে তুলে ধরেছে পাকিস্তান। সালভের কথায়, ‘‘পাকিস্তান আদালতে যে ধরনের বিশেষণ ব্যবহার করেছে, তা দুর্ভাগ্যজনক। আমি সেই ভাষায় উত্তর দিতে পারিনি। তার কারণ, আমি ভারতীয় সংস্কৃতির মধ্যে বড় হয়েছি।’’

Advertisement

দলমত নির্বিশেষে আন্তর্জাতিক আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন ভারতের রাজনৈতিক নেতৃত্ব। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন, ‘সত্যের জয়’। কুলভূষণ সুবিচার পাবেন বলে আত্মবিশ্বাসী তিনি। বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর টুইটারে লিখেছেন, ‘কুলভূষণের পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। তাঁদের সাহসের প্রশংসা করছি। সত্যমেব জয়তে।’ দ্য হেগ-এ পাকিস্তানের সঙ্গে লড়াই শুরু জয়শঙ্করের পূর্বসূরির আমলেই। সেই সুষমা স্বরাজ আজ ‘ভারতের বিরাট জয়ের’ জন্য টুইটারে ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী এবং সালভেকে। রাহুল গাঁধীর কথায়, ‘‘আজ রাতে কুলভূষণের কথা ভাবছি। জেলে একা বন্দি তাঁর কাছে এই রায় এক বিরল আশার ঝলক নিয়ে এসেছে। ’’ কংগ্রেস মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালার যদিও টুইট, ‘উদ্বেগটা রয়েই গেল। পাকিস্তানের বেছে নেওয়া মঞ্চে ফের তাঁর বিচার হবে। ফের তিনি অবিচারের শিকার হতে পারেন।’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.