×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৪ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

হাসপাতালের মর্গে চিৎকার করতে লাগলেন ‘মৃত’ ব্যক্তি!

সংবাদ সংস্থা
নাইরবি৩০ নভেম্বর ২০২০ ০৯:২০
পিটার কিগেন। ছবি ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

পিটার কিগেন। ছবি ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

হাসপাতালে ভর্তি এক ব্যক্তিকে মৃত বলে ঘোষণা করেছিলেন চিকিৎসকরা। মর্গে তাঁর দেহ সংরক্ষণের জন্য রাখা হয়েছিল। সেখানেই যখন তাঁর দেহ সংরক্ষণের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে তখনই জেগে ওঠেন ওই ‘মৃত’। জেগে নিজেকে মর্গে দেখেই চিৎকার করতে শুরু করেন। কেনিয়াতে হাসপাতালের অবহেলার এমনই ভয়ঙ্কর এক ঘটনার কথা সম্প্রতি সামনে এসেছে।

জানা গিয়েছে, ৩২ বছরের ওই ব্যক্তির নাম পিটার কিগেন। সম্প্রতি পেটে প্রচণ্ড ব্যথা নিয়ে কেনিয়ার কেইরিচোর কাপলাটেট হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। সেখানে ভর্তি হওয়ার দিন কয়েক পরে তাঁর পরিবারের লোকের কাছে খবর যায় পিটার মারা গিয়েছেন। পিটারের ভাই জানিয়েছেন, হাসপাতালের এক নার্স তাঁকে ভাইয়ের মৃত্যুর খবর দেন। তিনি বলেছেন, ‘‘মৃত্যুর খবর পেয়ে আমি হাসপাতালে যাই। মর্গ থেকে দেহ নেওয়ার জন্য আমাকে কাগজপত্রও দিয়েছিলেন নার্স। আধিকারিকরা দেহ সংরক্ষণের আগে মর্গে ডেকে পাঠান। সেখানে যেতেই চমকে যাই। দেখি ভাই নড়াচড়া করছে। আমি বুঝতে পারছি না এক জন জীবিত ব্যক্তিকে কী ভাবে মর্গে নিয়ে যাওয়া হল।’’ নিজেকে মর্গে আবিষ্কার করে ভয়ে চিৎকার করতে থাকেন কিগেন।

জীবিত অবস্থায় মর্গে পৌঁছে যাওয়া পিটার বলেছেন, ‘‘যা ঘটল তা আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। কী করে ওরা বুঝল আমি মৃত? ভগবানকে ধন্যবাদ আমার জীবন বাঁচিয়ে দেওয়ার জন্য।’’

Advertisement
Advertisement