Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Lufthansa

ফ্রাঙ্কফুর্টে প্রযুক্তি বিভ্রাটের জের, বিশ্ব জুড়ে লুফ্‌ৎহানসার অসংখ্য উড়ান বাতিল

বিমানবন্দরে সংস্কারকাজ চলাকালীন প্রযুক্তিগত সমস্যা দেখা দেয়। এর জেরে বুধবার সকাল থেকেই বিশ্ব জুড়ে লুফ্‌ৎহানসার অংসখ্য উড়ান বাতিল করতে বাধ্য হন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

Picture of Lufthansa flight halt

বিমানবন্দরে প্রযুক্তিগত সমস্যার জেরে হাজার হাজার যাত্রী লুফ্‌ৎহানসার উড়ানে উঠতে পারছেন না। ছবি: রয়টার্স।

সংবাদ সংস্থা
ফ্রাঙ্কফুর্ট শেষ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৯:৩৮
Share: Save:

প্রযুক্তি বিভ্রাটে মুখ পুড়ল ইউরোপের সবচেয়ে বড় বিমান সংস্থা লুফ্‌ৎহানসার। মঙ্গলবার ফ্রাঙ্কফুর্ট বিমানবন্দরে সংস্কারকাজ চলাকালীন ফাইবার অপটিক কেব‌্‌ল ছিঁড়ে যাওয়ায় প্রযুক্তিগত সমস্যা দেখা দেয়। এর জেরে বুধবার সকাল থেকেই বিশ্ব জুড়ে লুফ্‌ৎহানসার অংসখ্য উড়ান বাতিল করতে বাধ্য হন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। বহু উড়ান নির্দিষ্ট সময়ের থেকে দেরিতে ছাড়বে বলেও জানিয়েছে এই জার্মান এয়ারলাইন্স গোষ্ঠী।

এই বিভ্রাটের জেরে ভোগান্তিতে পড়া যাত্রীদের উদ্দেশে বিবৃতি জারি করে ক্ষমাপ্রার্থনা করেছে লুফ্‌ৎহানসা গোষ্ঠী। যদিও বিশ্ব জুড়ে কতগুলি উড়ান বাতিল করা হয়েছে অথবা সেগুলি দেরিতে ছাড়বে কি না, তা খোলসা করেননি তাঁরা। ফ্রাঙ্কফুর্ট বিমানবন্দরে এই গোষ্ঠীর প্রধান হাব হিসাবে পরিচিত। লুফ্‌ৎহানসার তরফে জানানো হয়েছে, বিমানবন্দরে প্রযুক্তিগত সমস্যার জেরে হাজার হাজার যাত্রী উড়ানে উঠতে পারছেন না। এর জেরে বিমানবন্দরে ভিড় এড়াতে তাদের বেশির ভাগ উড়ান বাতিল করা হয়েছে। স্বাভাবিক ভাবে এই সিদ্ধান্তে দুর্ভোগে পড়েছেন অগণিত যাত্রী। কারণ, লুফ্‌ৎহানসা ছাড়াও ইউরোউইগস, সুইস, ব্রাসেলস এবং অস্ট্রিয়ান এয়ারলাইন্স বিমান সংস্থার মালিকানা রয়েছে ইউরোপের সর্ববৃহৎ এই এয়ারলাইন গোষ্ঠীর।

জার্মানির ডয়েশ টেলিকম নামে এক সংস্থার দাবি, ফ্রাঙ্কফুর্ট বিমানবন্দরে সংস্কারকাজের সময় ৪টি ফাইবার অপটিক কেব্‌ল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এর জেরেই প্রযুক্তিগত সমস্যা দেখা যায়। সংস্থার এর মুখপাত্র সংবাদ সংস্থা এএফপি-কে বলেন, ‘‘ফাইবার অপটিক কেব‌লগুলি মেরামত করার কাজ চলছে। ইতিমধ্যে ২টি কেব্‌ল সারানো হয়ে গিয়েছে।’’ যদিও পরিস্থিতি কখন স্বাভাবিক হবে, তা নিয়ে মন্তব্য করেননি ওই মুখপাত্র অথবা লুফ্‌ৎহানসা কর্তৃপক্ষ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE