Advertisement
১৯ মে ২০২৪
Hand Grenade

ঘর সাজানোর জন্য নিয়ে এসেছিলেন বেশ কয়েকটি তাজা গ্রেনেড, তার পর যা হল

এক প্রতিবেশী ওই ব্যক্তির বাড়িতে এসে হ্যান্ড গ্রেনেডগুলি দেখতে পেয়ে আঁতকে উঠেছিলেন। তিনি পুলিশে ফোন করে বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ তড়িঘড়ি ডেভনে ওই ব্যক্তির বাড়িতে আসে।

Hand grenades foung in a room

ঘর থেকে উদ্ধার হ্যান্ড গ্রেনেড। প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
লন্ডন শেষ আপডেট: ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ১৫:৩৪
Share: Save:

ভেবেছিলেন ঘরটিকে অস্ত্রাগারের মতো সাজিয়ে তুলবেন। যেমন ভাবা, তেমন কাজ। সাজিয়ে তোলার প্রথম কাজটি শুরু করেছিলেন হ্যান্ড গ্রেনেড দিয়ে। বেশ কয়েকটি হ্যান্ড গ্রেনেড নিয়ে আসেন, সেগুলি শো পিসের মতো সুন্দর করে ঘরের মধ্যে সাজিয়েও রেখেছিলেন ব্রিটেনের ডেভনের এক ব্যক্তি।

এক প্রতিবেশী ওই ব্যক্তির বাড়িতে এসে হ্যান্ড গ্রেনেডগুলি দেখতে পেয়ে আঁতকে উঠেছিলেন। তিনি পুলিশে ফোন করে বিষয়টি জানান। খবর পেয়ে পুলিশ তড়িঘড়ি ডেভনে ওই ব্যক্তির বাড়িতে আসে। তারা দেখে হ্যান্ড গ্রেনেডগুলি সযত্নে সাজিয়ে রাখা রয়েছে তাকে। গ্রেনেডগুলি দেখে পুলিশ বুঝতে পারে যে, এগুলি সবক’টিই তাজা। ডেভনের এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তির বাড়িতে যতগুলি গ্রেনেড উদ্ধার হয়েছে, সেগুলি একসঙ্গে ফাটলে ওই এলাকার বেশির ভাগ বাড়ি উড়ে যেত। তাই বড়সড় বিপদ ঘটার আগেই গ্রেনেডগুলি বাড়ি থেকে বার করে নিষ্ক্রিয় করা হয়।

ঘটনাটি ৩১ জানুয়ারির। গ্রেনেডগুলি নিষ্ক্রিয় করার আগে পুরো এলাকা খালি করে দেওয়া হয়েছিল। রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। তার পর গ্রেনেডগুলি নিষ্ক্রিয় করা হয়। কেন তিনি ঘর সাজানোর জন্য গ্রেনেডগুলি এনেছিলেন? এই প্রশ্নের জবাবে ওই ব্যক্তির সরল স্বীকারোক্তি, “জানতাম না, এগুলি তাজা গ্রেনেড। ভাল লেগেছিল, তাই ঘরে সাজিয়ে রেখেছিলাম।” তবে কাউকে মারার উদ্দেশ্য ছিল না বলেও দাবি করেন ওই ব্যক্তি। এই গ্রেনেড ফাটলে তার অভিঘাত কী হত তা জানতে পেরে নিজেও আঁতকে উঠেছিলেন ওই ব্যক্তি। তাঁর দাবি, কোনও খারাপ উদ্দেশ্য নয়, শুধু সাজানোর জন্যই গ্রেনেডগুলি এনেছিলেন। পাশাপাশি তিনি ভাবতেই পারেননি যে, গ্রেনেডগুলি তাজা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Hand Grenade UK
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE