×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৬ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

সরকার ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী, দাবি রিপোর্টে

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২০ ডিসেম্বর ২০২০ ১২:৩২
কে পি শর্মা ওলি। ফাইল চিত্র।

কে পি শর্মা ওলি। ফাইল চিত্র।

জরুরি বৈঠক ডেকে সরকার ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি। সংবাদমাধ্যমের বেশ কয়েকটি রিপোর্টে তেমনই দাবি করা হয়েছে।

রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, শনিবার দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকের পর রবিবার সকালে মন্ত্রী পরিষদের জরুরি বৈঠক ডেকেছিলেন ওলি। সেখানে তিনি জানান, তাঁর সরকার সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছে। অতএব সরকার ভেঙে দেওয়া হোক।

নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য বিষ্ণু রিজাল বলেন, “প্রধানমন্ত্রী সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছেন। সরকার ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করেছেন তিনি।” দ্য কাঠমান্ডু পোস্ট-এর রিপোর্ট বলছে, সংবিধান পরিষদীয় আইন-এর অধ্যাদেশের বিষয়টি নিয়ে ক্রমাগত চাপ বাড়ছিল ওলির উপর। গত মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবী ভাণ্ডারীকে দিয়ে তা সই করিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। তা ছাড়া বেশ কয়েকটি সিদ্ধান্ত নিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে একটা অসন্তোষ তৈরি হচ্ছিল।

Advertisement

আরও পড়ুন: সুস্থ বেড়ে প্রায় ৯৬ লক্ষ, ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমে ৩৪১

করোনাভাইরাস, দেশের অর্থনীতি সংক্রান্ত বেশ কিছু ইস্যুতে নেপালের রাজনীতিতে একটা ডামাডোল চলছে। সরকার ব্যর্থ হয়েছে এই বিষয়গুলি সামাল দিতে, এই অভিযোগ তুলে ক্রমাগত চাপ বাড়াচ্ছিল বিরোধীরা। সূত্রের খবর, তার উপর দলের অন্দরেও ওলি-র ভূমিকা নিয়ে একটা চাপা ক্ষোভ তৈরি হচ্ছিল। শেষমেশ সরকার ভেঙে দেওয়ার সুপারিশ করলেন ওলি।

নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির এক নেতা মাধব নেপালকে উদ্ধৃত করে এক সংবাদ সংস্থা জানিয়েছে, “পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার বিষয়টি অসাংবিধানিক। এই সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা উচিত।”

Advertisement