Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

অস্ত্র চাই আরও, বার্তা পাঠায় বুহলেল

সংবাদ সংস্থা
নিস ১৮ জুলাই ২০১৬ ০৩:৪৮
নিসের সমুদ্রসৈকতে চলছে পুলিশি নজরদারি। ছবি: রয়টার্স।

নিসের সমুদ্রসৈকতে চলছে পুলিশি নজরদারি। ছবি: রয়টার্স।

হাড়হিম করা কতগুলো টেক্সট মেসেজ। যেগুলো দেখে চোখ কপালে উঠছে দুঁদে গোয়েন্দাদেরও। ১৯ টনের ট্রাক নিয়ে ঠাসা ভিড়টায় হামলা চালানোর আগে ওই সব মোবাইল বার্তা এক পরিচিতকে পাঠিয়েছিল মোহামেদ লাহুআইয়েজ বুহলেল।

ফরাসি পুলিশ আজ গ্রেফতার করেছে বুহলেলের সেই পরিচিত এবং এক মহিলাকে। তবে মুক্তি দেওয়া হয়েছে ঘাতক বুহলেলের প্রাক্তন স্ত্রীকে। ফরাসি সৈকত শহর নিসে ট্রাক হামলার ঘটনায় এখন ধৃতের সংখ্যা ৬।

ফরাসি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে অস্ত্রশস্ত্র আর বিস্ফোরক বোঝাই ট্রাক নিয়ে হামলা চালানোর ঠিক আগের মুহূর্তেই নিজের ফোন থেকে বেশ কয়েকটি মেসেজ পাঠিয়েছিল বুহলেল। রাত দশটা বেজে সাতাশ মিনিটে সে তার পরিচিতকে লিখেছে, ‘‘আরও অস্ত্র আনো। পাঁচের মধ্যে আনছি।’’ তারও আগে আর একটি বার্তায় সে লিখেছে, ‘‘এটা ভাল। আমার কাছে কাছে সব যন্ত্রপাতি আছে।’’ যে বা যাদের ওই মেসেজগুলো সে পাঠিয়েছিল, তাদের ইতিমধ্যেই নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে ফরাসি পুলিশ। তবে তদন্তের স্বার্থে ধৃতদের নাম-পরিচয় এখনই প্রকাশ্যে আনছে না তারা। শুধু জানিয়েছে, জঙ্গি যোগের প্রমাণ না থাকায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ঘাতক ট্রাক চালকের প্রাক্তন স্ত্রীকে। আজ সকালে থানা থেকে বেরিয়ে নিজের আইনজীবীর গাড়িতে উঠতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। থানা থেকে সোজা নিজের মায়ের বাড়িতে যান তিনি।

Advertisement



ফরাসি সংবাদমাধ্যমের একাংশ জানিয়েছে, যে বার্তায় বুহলেল ‘পাঁচের মধ্যে আনছি’ লিখেছে, তাতে সম্ভবত পাঁচ মিনিটের মধ্যে ট্রাক নিয়ে হামলার জায়গায় পৌঁছনোর কথা বলেছিল সে। হামলার দু’দিন আগে প্রমনাদ দেজ অঙ্গলেতে গিয়ে বারবার রেকি করেও এসেছিল সে। ট্রাফিক সিগন্যালে লাগানো সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে এমন তথ্যই পুলিশের হাতে এসেছে। পুলিশ আরও জানিয়েছে, হামলা যাতে ভাল ভাবে চালাতে পারে , তার জন্য বেছে বেছে সব চেয়েভারী ট্রাক ভাড়া নিয়েছিল সে।

তবে বুহলেলের সঙ্গে আইএসের যোগসাজশের কোনও প্রমাণ এখনও পর্যন্ত তাদের হাতে আসেনি বলে আজ আবারও জানিয়েছে পুলিশ। ফরাসি পুলিশের শীর্ষ কর্তাদের বক্তব্য, আইএস যেচে পড়ে গোটা ঘটনার দায় যতই নিতে চাক না কেন, বুহলাল যে আইএস ভাবধারায় অনুপ্রাণিত ছিল, এমন কোনও প্রমাণ এখনও তাঁদের হাতে আসেনি। বুহললা যে গোঁড়া মুসলিম ছিল না, তা আগেই জানিয়েছেন তার পরিচিতেরা। তার বাবাও কাল দাবি করেছিলেন, খুব অল্প সময়ের মধ্যেই কট্টরপন্থার দিকে ঝুঁকেছিল তাঁর সন্তান। ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী মানুয়েল ভালসও একই কথা বলেছেন। তিনিও জানিয়েছেন, খুব সম্প্রতি জঙ্গি ভাবাদর্শে দীক্ষা নিয়েছিল বুহলেল।

আরও পড়ুন

Advertisement