Advertisement
২৩ জুলাই ২০২৪
Kim Jong Un

যুদ্ধংদেহি কিম! সরালেন সেনাবাহিনীর প্রধানকে, যুদ্ধের প্রস্তুতির বার্তা

সেনাবাহিনীর প্রধানকে সরানোর পাশাপাশি অস্ত্র তৈরিতে জোর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কিম। গত সপ্তাহেই অস্ত্র তৈরির কারখানায় গিয়েছিলেন উত্তর কোরিয়ার শাসক।

photo of kim jong un

কিম জং উন। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
পিয়ংইয়ং শেষ আপডেট: ১০ অগস্ট ২০২৩ ১০:৪৮
Share: Save:

দেশের সেনাবাহিনীর প্রধানকে বরখাস্ত করলেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন। সেই সঙ্গে যুদ্ধের প্রস্তুতির নির্দেশ দিলেন কিম। এই পদক্ষেপে শোরগোল পড়ে গিয়েছে সে দেশে। বৃহস্পতিবার এই খবর জানিয়েছে সে দেশের সংবাদমাধ্যন ‘কেসিএনএ’।

জানা গিয়েছে, সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনের বৈঠকে বসেছিলেন কিম। সেখানেই এই পদক্ষেপ করার কথা জানান তিনি। ওই বৈঠকে কিম জানান যে, উত্তর কোরিয়ার শত্রুদের কাউকে রেয়াত করা হবে না। তাঁদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হবে। তবে শত্রু বলতে কাদের কথা বলেছেন কিম, তা উল্লেখ করেননি। অস্ত্রের উৎপাদন, সামরিক মহড়ায় জোর দেওয়ার নির্দেশ দেন কিম। পাশাপাশি, সম্ভাব্য যুদ্ধের প্রস্তুতি সারতে নির্দেশ দেন তিনি।

এর পরেই সে দেশের ‘চিফ অফ জেনারেল স্টাফ’ পাক সু ইলকে বরখাস্ত করেন কিম। তাঁর জায়গায় ওই পদে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রি ইয়ং গিলকে। তবে প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসাবে রি আর দায়িত্ব সামলাবেন কি না, তা স্পষ্ট নয়। কী কারণে পাক সু ইলকে বরখাস্ত করা হল, তা জানা যায়নি।

সেনাবাহিনীর প্রধানকে সরানোর পাশাপাশি, অস্ত্র তৈরিতে জোর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কিম। গত সপ্তাহেই অস্ত্র তৈরির কারখানায় গিয়েছিলেন উত্তর কোরিয়ার শাসক। অস্ত্র এবং ক্ষেপণাস্ত্র তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। কিন্তু কেন হঠাৎ অস্ত্র তৈরিতে জোর দেওয়ার নির্দেশ দিলেন কিম, এই নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। অনেকে মনে করছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার দিকেই ইঙ্গিত করেছেন কিম। আবার সম্প্রতি আমেরিকা দাবি করেছে যে, রাশিয়াকে অস্ত্র পাঠাচ্ছে উত্তর কোরিয়া। যদিও রাশিয়া এবং উত্তর কোরিয়া সেই দাবি অস্বীকার করেছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Kim Jong Un North Korea
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE