Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Russia-Ukraine Crisis

পশ্চিমী আপত্তি উপেক্ষা! ইউক্রেনের চার অঞ্চল এখন রাশিয়ার, দাবি করে আইনে সই পুতিনের

বিবিসির রিপোর্ট বলছে, মস্কোতে পুতিন জানিয়েছেন, খেরসন, জ়াপোরিঝঝিয়া, ডনেৎস্ক, লুহানস্ক— এই চার অঞ্চলের বাসিন্দারা ‘এর পর থেকে চিরতরে রাশিয়ার নাগরিক হবেন’।

পুতিন অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমের দেশগুলি আসলে রাশিয়াকে ‘চুরি’ করার চেষ্টা করছে।

পুতিন অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমের দেশগুলি আসলে রাশিয়াকে ‘চুরি’ করার চেষ্টা করছে। —ফাইল ছবি।

সংবাদ সংস্থা
মস্কো শেষ আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ২১:২২
Share: Save:

ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল এখন রাশিয়ার অন্তর্গত। শুক্রবার ঘোষণা করলেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। যদিও ইউক্রেন বা পশ্চিমের দেশগুলি স্পষ্ট জানিয়েছে, রাশিয়ার এই দাবি তারা মানবে না।

Advertisement

বিবিসির রিপোর্ট বলছে, মস্কোতে পুতিন জানিয়েছেন, খেরসন, জ়াপোরিঝঝিয়া, ডনেৎস্ক, লুহানস্ক— এই চার অঞ্চলের বাসিন্দারা ‘এর পর থেকে চিরতরে রাশিয়ার নাগরিক হবেন’। তিনি আরও বলেন, ‘‘মানুষ নিজেদের পছন্দের কথা জানিয়েছে। এটা লাখ লাখ মানুষের ইচ্ছা।’’ পুতিনের আরও দাবি, ওই অঞ্চলের বাসিন্দাদের রাশিয়ার প্রতি ‘ভালবাসা’ রয়েছে। আর এই সংযুক্তিকরণ ‘স্থায়ী’ বলেও জানিয়েছেন তিনি।

পশ্চিমের দেশগুলির বিরুদ্ধে আঙুল তুলেছেন রুশ প্রেসিডেন্ট। অভিযোগ করেছেন, পশ্চিমের দেশগুলি আসলে রাশিয়াকে ‘চুরি’ করার চেষ্টা করছে। বক্তৃতা করার পর পুটিন চার অঞ্চলের সংযুক্তিকরণের আইনে সই করেন তিনি। সংবাদ মাধ্যম রয়টার্স বলছে, এই চার অঞ্চল ইউক্রেনের মোট ভূখণ্ডের ১৫ শতাংশ। যদিও এই চার অঞ্চলের মধ্যে নেই ক্রাইমিয়া। ২০১৪ সালে ক্রাইমিয়া সংযুক্ত করে নিয়ন্ত্রণ করছে রাশিয়া।

একটি বিষয় স্পষ্ট নয়, চারটি অঞ্চলের পুরোটাই কি নিজেদের দেশে সংযুক্ত করেছে রাশিয়া। কারণ এই চার অঞ্চলের বেশ কিছু অংশ যুদ্ধ করে পুনরুদ্ধার করেছে ইউক্রেন। দেশের প্রেসিডেন্ট ভোলোদিমির জেলেনস্কি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, এই সংযুক্তিকরণ নিয়ে রাশিয়া আর এগোলে ‘যোগ্য জবাব’ দেবেন তাঁরা।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.