Advertisement
২৩ জুলাই ২০২৪
ISK

আত্মঘাতী হানায় তালিবান গভর্নর খুন আফগানিস্তানে! সন্দেহের নিশানায় আইএস-খোরাসান গোষ্ঠী

বল্‌খ প্রদেশের রাজধানী মাজার-ই-শরিফের গভর্নর হাউসের দোতলায় এই আত্মঘাতী বিস্ফোরণে গভর্নর মহম্মদ দাউদ মুজাম্মেল নিহত হন বলে প্রাদেশিক পুলিশ আধিকারিক ওয়াজির আসিফের দাবি।

Taliban Governor of Afghanistan’s Balkh province killed in suicide attack at Mazar-i-Sharif

আফগানিস্তানের মাজার-ই-শরিফে জঙ্গি হানায় নিহত তালিবান গভর্নর। ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
কাবুল শেষ আপডেট: ০৯ মার্চ ২০২৩ ১৬:৪৬
Share: Save:

মানববোমার হামলায় খুন হলেন তালিবান শাসিত আফগানিস্তানের বল্‌খ প্রদেশের গভর্নর। বৃহস্পতিবার সকালে মহম্মদ দাউদ মুজাম্মেল নামে ওই প্রথম সারির তালিবান নেতা নিজের দফতরেই আত্মঘাতী হামলার শিকার হন বলে সরকারি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।

বল্‌খ প্রদেশের রাজধানী মাজার-ই-শরিফের গভর্নর হাউসে এই বিস্ফোরণ ঘটে বলে প্রাদেশিক পুলিশ আধিকারিক ওয়াজির আসিফের দাবি। এই আত্মঘাতী হামলার নেপথ্যে পশ্চিম এশিয়ার জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর আফগান শাখা আইএস-খোরাসান (আইএস-কে) রয়েছে বলে মনে করছে তালিবান শাসকগোষ্ঠী। ঘটনাচক্রে, কাবুলে তালিবান শীর্ষনেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠকের পরে বুধবার রাতেই মাজার-ই-শরিফে ফিরেছিলেন দাউদ।

২০২১ সালে আমেরিকার সেনা প্রত্যাহার পর্বে কাবুল বিমানবন্দরে বিস্ফোরণ এবং পরবর্তী পর্যায়ে একাধিক নাশকতামূলক ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ করেছে আইএস-কের বিরুদ্ধে। বর্তমান পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ইরান, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান এবং উজবেকিস্তানের একাংশ নিয়ে ছিল প্রাচীন খোরাসান অঞ্চল। আইএস-এর আফগান শাখা ওই অঞ্চলকে তাদের নামে জুড়ে নিয়েছে। গত কয়েক বছরে একাধিক বার বিভিন্ন তালিবান ঘাঁটিতেও আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে তারা।

২০১৪-য় পাক তালিবান নেতা হাফিজ সইদ খান আইএস-কে গঠন করেছিলেন। তৎকালীন আইএস প্রধান আবু বকর আল বাগদাদির অনুগামী হাফিজ ২০১৬-য় আমেরিকার বিমান হানায় নিহত হন। পাক সীমান্ত ঘেঁষা উত্তর-পূর্ব আফগানিস্তানের নানগরহর, নুরিস্তান, কুনার প্রদেশ আইএস-কের ঘাঁটি। মূল সংগঠন আইএস-এর মতোই তাদের লক্ষ্য খিলাফতের (খলিফার শাসন) পুনঃপ্রতিষ্ঠা।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE