×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ জুন ২০২১ ই-পেপার

সন্ত্রাসের খবর চেপে যাচ্ছে! কোর্টকে ছেড়ে ফের মিডিয়াকে তোপ ট্রাম্পের

সংবাদ সংস্থা
০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ ১৭:১০
হোয়াইট হাউস।

হোয়াইট হাউস।

আবার সাংবাদিকদের কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর তার পরের দিনই তথ্য, তালিকা দিয়ে সাংবাদিকদের শূলে চড়াল হোয়াইট হাউস।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিযোগ, জঙ্গি সন্ত্রাসের ঘটনাগুলি যে ভাবে উঠে আসা উচিত, সেগুলিকে ততটা গুরুত্ব দিচ্ছে না মার্কিন সংবাদমাধ্যম। সোমবার ট্রাম্পের ওই অভিযোগের পরপরই মঙ্গলবার হোয়াইট হাউস এমন ২৫টি ঘটনার একটি তালিকা প্রকাশ করে দিয়েছে। বলা হয়েছে, ওই ২৫টি সন্ত্রাসের ঘটনা মার্কিন সংবাদমাধ্যমে আদৌ গুরুত্ব পায়নি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই সেই ঘটনাগুলির যতটা গুরুত্ব পাওয়া উচিত ছিল, ততটা গুরুত্ব দেওয়া হয়নি। কিছু কিছু ক্ষেত্রে সন্ত্রাসের ঘটনাগুলি প্রকাশিতই হয়নি।

সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগে চলেছেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। প্রথম তোপটা দেগেছিলেন শপথ নেওয়ার পরপরই। বলেছিলেন, ‘‘সাংবাদিকরা খুব অসৎ’’। তার পর সোমবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ‘‘সন্ত্রাসের ঘটনা প্রকাশের ব্যাপারে তেমন আগ্রহ নেই সংবাদমাধ্যমের।’’

আরও পড়ুন- ভাল কাজ হজম করতে পারেন না, বিরোধীদের তোপ মোদীর

Advertisement

এ দিন হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি সিয়ান স্পাইসার বলেছেন, ‘‘ওই ঘটনাগুলি সংবাদমাধ্যমে আদৌ গুরুত্ব পাচ্ছে না। অনেক ক্ষেত্রে আরও বেশি অসাধুতার পরিচয় দিচ্ছে সংবাদমাধ্যম। তারা এমন ঘটনার খবর করতেই চাইছে না। ওঁদের (সংবাদমাধ্যমের মালিকরা) নানা রকমের যুক্তি আছে। তা আপনারাও জানেন না, এমন নয়। আমরা বলছি না, ঘটনাগুলি একেবারেই ছাপা হচ্ছে না। তবে যতটা হওয়া উচিত, ততটা হচ্ছে না।’’

এর পরেই এমন ২৫টি ঘটনার উল্লেখ করে একটি তালিকা প্রকাশ করেছে হোয়াইট হাউস। সঙ্গে রয়েছে আরও ৭৮টি ঘটনার একটি তালিকা, যেখানে জঙ্গি সন্ত্রাসের ঘটনাগুলি কাঙ্খিত গুরুত্ব পায়নি।

মার্কিন সংবাদমাধ্যমের একটি বড় অংশ অবশ্য প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও হোয়াইট হাউসের এই বক্তব্য মানতে রাজি হয়নি। তাঁদের বক্তব্য, হোয়াইট যে ২৫টি ঘটনার তালিকা দিয়েছে, সন্ত্রাসের সেই ঘটনাগুলির মধ্যে মাত্র তিনটি ঘটেছে আমেরিকায়। আর সেই তিনটি ঘটনায় এক জনেরও মৃত্যু হয়নি। হয়নি তেমন কোনও ক্ষয়ক্ষতিও। তাই সেই সব ঘটনা তেমন গুরুত্ব পায়নি মার্কিন সংবাদমাধ্যমে। তবে সন্ত্রাসের বেশির ভাগ ঘটনাই যথেষ্ট গুরুত্ব পেয়েছে সংবাদমাধ্যমে।

Advertisement