Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Weird

শ’খানেক অ্যামাজনের প্যাকেট এসে হাজির মহিলার দরজায়, অথচ তিনি নাকি অর্ডারই করেননি!

ইউটিউবে এই বিপন্নতার কথা জানিয়েছেন ওই মহিলা। তিনি বলেছেন, ওই বাক্সগুলি আর তার ভিতরে থাকা জিনিসপত্র নিয়ে কী করবেন, ভেবে কূল কিনারা পাচ্ছেন না তিনি।

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ৩১ জুলাই ২০২৩ ১৮:৪৭
Share: Save:

অর্ডার করেননি, তবু বাড়িতে এসে হাজির হল কার্ডবোর্ডে মোড়া অ্যামাজনের বাক্স! এমনটা হলে যেমন অজানা প্রেরকের উপহার ভেবে আনন্দ হতে পারে, তেমনই অজানা আশঙ্কাও দেখা দিতে পারে মনে। আমেরিকার এক মহিলা এই একই পরিস্থিতিতে পড়েছেন। প্রায় রোজই তাঁর বাড়ির চৌকাঠে এসে হাজির হচ্ছে অ্যামাজনের বাক্স। অথচ তার কোনওটিই তিনি অর্ডার করেননি। ইউটিউবে এই বিপন্নতার কথা জানিয়েছেন ওই মহিলা। তিনি বলেছেন, এ ভাবে প্রায় শ’ খানেকেরও বেশি বাক্স এসে হাজির হয়েছে তাঁর দরজায়। সেগুলিকে নিয়ে তিনি কী করবেন ভেবে কূল কিনারা পাচ্ছেন না তিনি।

ভার্জিনিয়ার ঘটনা। ওই মহিলার নাম সিন্ডি স্মিথ। তিনি প্রিন্স উইলিয়াম কাউন্টির বাসিন্দা। সিন্ডি জানিয়েছেন, শুধু অ্যামাজন আরও নানা অনলাইন বাজার করার সংস্থা থেকে প্যাকেজ এসে পৌঁছেছে তাঁর বাড়িতে। আর সেই সব প্যাকেজই এসেছে জনৈক লিক্সিয়াও ঝ্যাঙের নামে। কী আছে সেই সমস্ত প্যাকেটে? সিন্ডি জানিয়েছেন, প্রায় হাজার খানেক হেডল্যাম্প, ৮০০টির কাছাকাছি গ্লু-গান এবং অজস্র ছোটদের দূরবীন ছিল ওই সমস্ত বাক্সে। দীর্ঘদিন সেগুলির কোনও দাবিদার না পেয়ে, সিন্ডি নিজের উদ্যোগে সেই সমস্ত জিনিস বিলিয়ে দিতে শুরু করেন। সিন্ডি জানিয়েছেন, আমার সমস্ত প্রতিবেশীকে ইতিমধ্যেই হেডল্যাম্প আর গ্লু-গান দেওয়া হয়ে গিয়েছে। কিছুদিন আগে গাড়িতে ওই সব জিনিসপত্র বোঝাই করে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরেওছেন তিনি। আগ্রহী পথচারীদের উপহার হিসাবে দিয়ে দিয়েছেন সে সব। তবে তাতেও ফাঁকা হয়নি সিন্ডির ভাঁড়ার।

সিন্ডি বেশ বিপদেই পড়েছেন ওই  সমস্ত বেওয়ারিশ প্যাকেট পেয়ে।

সিন্ডি বেশ বিপদেই পড়েছেন ওই সমস্ত বেওয়ারিশ প্যাকেট পেয়ে। ছবি: ইউটিউব থেকে।

সিন্ডি জানিয়েছেন, তিনি সম্প্রতি বিভিন্ন খাবারের আউটলেটে ঘুরে ঘুরে উপহার বিলি করেছেন। যদিও কে তাঁর এমন সর্বনাশটি করল, তার হদিস পাননি তিনি। সিন্ডির এই ঘটনাটি শুনে অবশ্য নেটাগরিকেরা জানিয়েছেন, হয়তো কোনও দোকানদার অ্যামাজনে ওই অর্ডার করেছিলেন। কিন্তু তারা তা ফেরত দিতে না পেরে তা জড়ো করেছেন সিন্ডির বাড়ির ঠিকানায়। যদিও সেটিই আসল ঘটনা কি না তা স্পষ্ট নয় ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Amazon
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE