Advertisement
২৯ জানুয়ারি ২০২৩
gold

সোনার চড়া দামে আশঙ্কার মেঘ

ওয়েস্ট বেঙ্গল বুলিয়ন মার্চেন্টস অ্যান্ড জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের পরিসংখ্যান বলছে, গত আট দিনে কলকাতায় প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারাট পাকা সোমার দাম বেড়েছে ১০৫০ টাকা।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ ০৭:০৩
Share: Save:

বিয়ের মরসুম চলার মধ্যেই মাত্র তিন দিনে এক ধাক্কায় ৯০০ টাকা বেড়েছে সোনার দাম। যা চিন্তা বাড়াচ্ছে সাধারণ মানুষের। বিশেষত যাঁদের চলতি বিয়ের মরসুমে গয়না না-কিনলেই নয়¸ তাঁরা আতান্তরে পড়েছেন বেশি। ব্যবসায়ী মহল অবশ্য এখনও আশাবাদী। তাঁরা বলছেন, দাম বাড়লেও বিক্রি সে ভাবে ধাক্কা খায়নি। বরং আরও দর বৃদ্ধির আশঙ্কায় এখনই সোনা কিনছেন ক্রেতারা।

Advertisement

ওয়েস্ট বেঙ্গল বুলিয়ন মার্চেন্টস অ্যান্ড জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের পরিসংখ্যান বলছে, গত আট দিনে কলকাতায় প্রতি ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারাট পাকা সোমার দাম বেড়েছে ১০৫০ টাকা। এর মধ্যে চলতি মাসেই তা মাথাচাড়া দিয়েছে ৯০০ টাকা। শনিবার পাকা সোনা হয়েছে ৫৪,৩০০ টাকা। ১০ গ্রাম ২২ ক্যারাট গয়না সোনা ছুঁয়েছে ৫১,৫০০ টাকা। দু’ক্ষেত্রেই এর সঙ্গে যুক্ত হবে কর। সোনার বাজার সূত্রের খবর, দাম আরও বাড়তে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, কয়েক মাস আগে যখন ডলারের দাম হুহু করে বাড়ছিল এবং তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে আমেরিকায় বাড়ছিল সুদের হার, তখন লগ্নিকারীরা সোনা থেকে টাকা তুলে নিয়ে ঢালছিলেন ডলার এবং বন্ডে। কিন্তু সম্প্রতি বিশ্ব জুড়েই কমতে শুরু করেছে আমেরিকার মুদ্রাটির দর। পাশাপাশি আমেরিকার শীর্ষ ব্যাঙ্ক ফেডারাল রিজ়ার্ভ বলেছে আগামী দিনে চড়া হারে সুদ বৃদ্ধির পথ থেকে সরে আসবে তারা। মূলধনী বাজারের ধারণা, এর ফলে লগ্নির ক্ষেত্র হিসেবে জৌলুস হারাতে পারে বন্ড। তাই লগ্নিকারীরা এখন ফের সোনার দিকে ঝুঁকেছেন। যার ফলে আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বাড়তে শুরু করেছে ধাতুটির। তার প্রভাবপড়েছে ভারতেও।

তবে দাম বাড়লেও সোনার গয়নার চাহিদায় এখনও পর্যন্ত তেমন ভাটা পড়েনি বলেই দাবি করছেন ব্যবসায়ীরা। স্বর্ণশিল্প বাঁচাও কমিটির কার্যকরী সভাপতি সমর দে বলেন, “এখন বিয়ের মরসুম চলছে। সোনার দাম বাড়তে থাকায় আশঙ্কা ছিল গয়নার চাহিদা কমবে। কিন্তু বাস্তবে তা হয়নি। বরং আগামী দিনে দাম আরও বাড়তে পারে, এই আশঙ্কায় ক্রেতারা প্রয়োজনের গয়না কিনে রাখছেন। সামনেই উৎসবের মরসুম। আশা করছি গয়নার চাহিদা আরও বাড়বে। ইতিমধ্যেই গয়না ব্যবসায়ীরা উৎসবের মরসুমের জন্য নানা রকম অফার দিতে শুরু করেছেন।’’

Advertisement

পাকা সোনার ব্যবসায়ী জে জে গোল্ডের ডিরেক্টর হর্ষদ অজমেঢ়া বলেন, আমেরিকায় সুদের হার বৃদ্ধিতে রাশ টানার ইঙ্গিত দিয়েছে ফেডারাল রিজ়ার্ভ। ফলে বন্ডে লগ্নির আকর্ষণ কমছে। ডলারের দাম কমতে থাকায় সেখান থেকেও মুখ ফেরাচ্ছেন লগ্নিকারীরা। ওই দুই ক্ষেত্রের লগ্নিই এ বার ঢুকবে সোনায়। ফলে দাম আগামী দিনে আরও বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.