• প্রজ্ঞানন্দ চৌধুরী
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কর্মীদের পিএফ পরিষেবা এ বার হোয়াটসঅ্যাপে

WhatsApp
প্রতীকী ছবি।

লক্ষ্য ছিল তিনটি। কর্মী প্রভিডেন্ট ফান্ডের সব পরিষেবাকে একই ছাতার তলায় আনা। অনলাইনে সুরক্ষিত ভাবে পরিষেবাগুলির সুযোগ নেওয়ার ব্যবস্থা। এবং পিএফের আওতাভুক্ত সদস্যদের সহজ পদ্ধতিতে সেগুলি পাওয়ার সুবিধা দেওয়া। পিএফ কর্তৃপক্ষের দাবি, সেই তাগিদেই এ বার হোয়াটসঅ্যাপ মারফত পরিষেবা চালু করেছেন তাঁরা। যার মাধ্যমে গ্রাহককে আপাতত পিএফে নথিভুক্তি, অগ্রিমের আবেদন, লাইফ সার্টিফিকেট জমা-সহ ২০টি পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে। তবে এখন শুধু পশ্চিমবঙ্গে চালু হয়েছে এই ব্যবস্থা। পরে সারা দেশে আনা হবে। এর হাত ধরে সারা দেশে পিএফের পাঁচ কোটি সদস্য ও প্রায় সাড়ে পাঁচ লক্ষ নথিভুক্ত সংস্থা উপকৃত হবে, দাবি কর্তৃপক্ষের।

পিএফ দফতর জানিয়েছে, বাংলা, ইংরেজি ও হিন্দি— তিন ভাষাতেই পরিষেবা নেওয়ার সুবিধা পাবেন গ্রাহক। যা পিএফের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে (+৯১৩৩২৩৩৪০০৬৭) একেবারে গোড়াতেই জানিয়ে দিতে হবে। আঞ্চলিক পিএফ কমিশনার (২) অভিজিৎ কুন্ডু বলেন, “বর্তমানে পরিষেবাগুলি পেতে হলে পিএফের পোর্টালে গিয়ে খোঁজাখুঁজি করতে হয়। নতুন ব্যবস্থায় অনেক সহজে সেগুলি পাবেন সদস্যেরা। এ ছাড়া, এখানে এমন কিছু তথ্য পাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে, যা পোর্টালে মিলবে না।’’

পিএফ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ইংরেজিতে কেউ পরিষেবা পেতে চাইলে প্রথমে মোবাইল থেকে পিএফ হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে ‘hi’ লিখে পাঠাতে হবে। তার পরে ধাপে ধাপে প্রয়োজনীয় পরিষেবা পর্যন্ত যাওয়ার পথ খুলবে (দেখে নিন সঙ্গের সারণি) সংশ্লিষ্ট সদস্য অথবা নথিভুক্ত সংস্থার।

কী কী পরিষেবা

২০টি পরিষেবা মিলবে হোয়াটসঅ্যাপে। উল্লেখযোগ্যগুলি—

• নতুন সংস্থা ও সদস্যের পিএফে নথিভুক্তি।

• কেওয়াইসি বদল।

• পিএফ তহবিল থেকে করোনার জন্য বিশেষ অগ্রিমের আবেদন।

• অন্যান্য সব রকম আগ্রিমেরও আর্জি।

• পাসবুক দেখা।

• পেনশনের টাকা মেটানোর বিশদ বিবরণ।

• লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে পেনশনভোগীর বাড়ি কাছে জীবন প্রমাণ কেন্দ্রের হদিশ।

• পিএফের পেনশন বণ্টন করে এমন ব্যাঙ্কের তালিকা।

• পিএফ নিয়ে প্রশ্নের উত্তর।

• অভিযোগ জানানো।

 

কী ভাবে পাবেন

+৯১৩৩২৩৩৪০০৬৭ নম্বরটি ‘ইপিএফও কলকাতা হোয়াটসঅ্যাপ’ নামে সেভ করতে পারেন।

• বাংলায় পরিষেবা পেতে প্রথম ‘BAN ’ লিখে পাঠান ওই নম্বরে। ইংরেজিতে পেতে ‘Hi’, হিন্দিতে ‘HIN  ’ লিখবেন।

• ফোনের পর্দায় ক্রমিক নম্বর-সহ পরিষেবাগুলির তালিকা আসবে।

• প্রয়োজনীয় পরিষেবার ক্রমিক নম্বর পাঠান।

• তার পরেই ওই পরিষেবা পাওয়ার ওয়েবপেজ খুলবে।

• নিরাপত্তার কারণে অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত আর্থিক পরিষেবা পেতে নিজের UAN এবং  Password দিতে হবে।

• নথিবদ্ধ মোবাইল ফোনে OTP আসবে।

• বাকি কাজ সারা যাবে তার পর।

সম্প্রতি করোনা মোকাবিলায় আর্থিক সুবিধা এনেছে কেন্দ্র। ১০০ জন পর্যন্ত কর্মী রয়েছে এবং তাঁদের মধ্যে ৯০ শতাংশের বেতন মাসে ১৫,০০০ টাকার মধ্যে, এমন সব সংস্থায় মার্চ থেকে অগস্ট পর্যন্ত পিএফ খাতে কর্মী ও মালিকের দেয় পুরো টাকাটাই প্রধানমন্ত্রী গরিব কল্যাণ যোজনায় অনুদান হিসাবে দেবে তারা। কোন কোন সংস্থা্ তা পাওয়ার যোগ্য, তা জানা যাবে এই পরিষেবায়, দাবি অভিজিৎবাবুর। তিনি বলেন, “এই ঘোষণা এপ্রিলে হয়েছিল। অনেক সংস্থা তার আগেই মার্চের পিএফ জমা দিয়েছে। তারা এ বার ওই টাকা ফেরত পাবে। কোন সংস্থাগুলি পাবে, তাদের নাম জানা যাবে পিএফ হোয়াটসঅ্যাপে।’’

আরও পড়ুন: ১২ অগস্ট পর্যন্ত ট্রেন বন্ধ, মাসিক টিকিটের টাকা ফেরত না মেয়াদ বৃদ্ধি?

আরও পড়ুন: দফায় দফায় চিঠি, জট কাটেনি ক্যাল-টেলের

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন