Advertisement
১৬ জুন ২০২৪
Price Hike

মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আশঙ্কা বিশ্ব ব্যাঙ্কের রিপোর্টে

বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি, গত এপ্রিলে বৃদ্ধির পূর্বাভাস ৬.৩ শতাংশে নামিয়েছিল বিশ্ব ব্যাঙ্ক। যা আরবিআইয়ের ৬.৫% অনুমানের কম।

An image of price hike

—প্রতীকী চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ও মুম্বই শেষ আপডেট: ০৪ অক্টোবর ২০২৩ ০৮:২২
Share: Save:

বিশ্ব বাজারের দুর্বলতা অনেক দিন ধরেই ধাক্কা দিয়ে চলেছে ভারতকে। তবে বিশ্ব ব্যাঙ্কের দাবি, তার মধ্যেও অর্থনীতিকে সচল রেখেছে দেশের বাজারে বাড়তে থাকা চাহিদা এবং গতিশীল পরিষেবা ক্ষেত্র। মূলত এগুলিকে কারণ হিসেবে দেখিয়েই চলতি (২০২৩-২৪) অর্থবর্ষে এ দেশের আর্থিক বৃদ্ধির পূর্বাভাস অপরিবর্তিত (৬.৩%) রেখেছে তারা। কিন্তু একই রিপোর্টে আশঙ্কা বাড়িয়ে মূল্যবৃদ্ধির পূর্বাভাস ৫.৫% থেকে বাড়িয়ে ৫.৯% করা হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের ব্যাখ্যা, এই পূর্বাভাস সত্যি হলে আরও বেশ কিছু দিন দামের আগুনে পকেট পুড়বে সাধারণ মানুষের। বিশেষ করে বিশ্ব বাজারে অশোধিত তেলের দাম যেহেতু আবার বাড়তে শুরু করেছে। সে ক্ষেত্রে আরও কয়েক মাস সুদের হার উঁচু থাকতে পারে। যা বাধা দেবে বেসরকারি লগ্নিকে। বিরূপ প্রভাব পড়বে কাজের বাজারে। আজই অন্য এক রিপোর্টে তেলের দাম, অনিয়মিত বৃষ্টি এবং রফতানি ক্ষেত্র নিয়ে আশঙ্কার কথা শুনিয়েছে মূল্যায়ন সংস্থা ক্রিসিল।

বিশেষজ্ঞদের একাংশের দাবি, গত এপ্রিলে বৃদ্ধির পূর্বাভাস ৬.৩ শতাংশে নামিয়েছিল বিশ্ব ব্যাঙ্ক। যা আরবিআইয়ের ৬.৫% অনুমানের কম। উন্নতি এবং পোক্ত অর্থনীতির বার্তা দিলেও বিশ্ব ব্যাঙ্ক বৃদ্ধির পূর্বাভাস না বাড়িয়ে অপরিবর্তিত রাখল এই সব অনিশ্চয়তার কারণেই।

অতিমারি এবং তার পরে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বিশ্ব অর্থনীতিকে চাপে রেখেছে। উল্টো দিকে, ভারতীয় অর্থনীতিতে গতি ফিরলেও, রফতানির ঝিমিয়ে থাকা এবং চড়া দাম তাকে প্রত্যাশিত জায়গায় পৌঁছতে দেয়নি। এই অবস্থায় অশোধিত তেলের দাম ফের মাথা তুলেছে। সংশ্লিষ্ট মহলের দাবি, এর ফলে পরিবহণ জ্বালানি এবং বিভিন্ন পণ্যের দামে চাপ থাকবে আগামী দিনেও। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টিপাতও হয়েছে অসমান ও অনিয়মিত। এই প্রেক্ষিতেই বিশ্ব ব্যাঙ্ক জানিয়েছে, সারা বছরের মূল্যবৃদ্ধির হার হতে পারে ৫.৯%। যা রিজ়ার্ভ ব্যাঙ্ক নির্ধারিত ৬% সহনসীমা ছুঁইছুঁই। আর ক্রিসিল বলেছে, সরকারি খরচ বাড়লেও শিল্প ক্ষেত্র এখনও নতুন বিনিয়োগ থেকে হাত গুটিয়ে রয়েছে। সম্প্রতি ঠিক একই সমস্যার কথা বলেছেন নীতি আয়োগের প্রাক্তন ভাইস চেয়ারম্যান রাজীব কুমার। সেই সঙ্গে জানিয়েছেন, দেশের বিপুল তরুণ প্রজন্মের স্বপ্নপূরণ করতে হলে যে কর্মসংস্থান তৈরি করা দরকার তার জন্য বৃদ্ধির হার ৮% হতে হবে। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, আপাতত সেই সম্ভাবনাও দেখা যাচ্ছে না। সবচেয়ে বেশি পূর্বাভাস এসঅ্যান্ডপি গ্লোবাল মার্কেট ইন্টেলিজেন্সের, ৬.৬%।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Price Hike Indian Market world bank
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE