×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

জিএসটি ফাঁকি রুখতে ব্যবস্থা

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি ২৪ ডিসেম্বর ২০২০ ০৩:৩৩
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

দীর্ঘ দিন ধরেই এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে লেনদেনের ভুয়ো নথি দেখিয়ে আগে মেটানো জিএসটির টাকা ফেরত (আইটিসি) নেওয়ার অভিযোগ উঠছে। তা আটকাতে বুধবার একগুচ্ছ পদক্ষেপ করল অর্থ মন্ত্রক। নতুন ‘রুল ৮৬বি’-তে বলা হয়েছে, এখন থেকে যে ব্যবসায়ীর বার্ষিক আয় ৫০ লক্ষ টাকার বেশি, তাঁদের কমপক্ষে ১% জিএসটি নগদে দিতে হবে। তবে জিএসটি-তে নেই বা করের হার শূন্য এমন পণ্যের বিক্রি বাবদ আয়কে বার্ষিক আয়ের মধ্যে ধরা হবে না।

যদিও যে সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর বা কোনও অংশীদার আগের বছরের আয়ের উপরে ১ লক্ষ টাকার বেশি আয়কর দিয়েছেন অথবা নথিভুক্ত সংস্থা বা ব্যক্তি একই অঙ্কের টাকা আইটিসি দাবি না-করায় রিফান্ড পেয়েছেন, তাদের ক্ষেত্রেও নতুন ব্যবস্থা প্রযোজ্য হবে না। যে সব পণ্য লেনদেনের জন্য জিএসটিআর-৩বি ফর্ম পূরণ করে কর মেটানো হয়নি, সেগুলির বিক্রির উল্লেখ জিএসটিআর-১ ফর্মে করা যাবে না।

পাশাপাশি, আজ ই-ওয়ে বিল মঞ্জুরের নতুন ব্যবস্থায় ট্রাকে পণ্য পরিবহণের ক্ষেত্রে ২০০ কিমি পথ যেতে এক দিন সময় দেওয়া হয়েছে। বলা হয়েছে, ভুয়ো সংস্থা নথিভুক্তি রুখতে আগে আধার কার্ডের তথ্য যাচাই করা এবং সংস্থার ঠিকানা সরেজমিনে দেখার কথাও।

Advertisement
Advertisement