নরেন্দ্র মোদীর ৫ লক্ষ কোটি ডলারের অর্থনীতির লক্ষ্য পূরণ হলে কি সত্যি বড়াই করার মতো কিছু থাকবে? নাকি পাটিগণিতের স্বাভাবিক নিয়মেই তা হবে? প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমের এই প্রশ্নের আজ কোনও জবাবই দিলেন না অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। বরং তাঁর প্রশ্ন, মনমোহন-জমানায় অর্থনীতির দিকে কেন নজর দেওয়া হয়নি?

২০২৪-২৫-এ অর্থনীতির বহরকে ৫ লক্ষ কোটিতে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য স্থির করেছেন প্রধানমন্ত্রী। রাজ্যসভায় বাজেট বিতর্কে বৃহস্পতিবারই চিদম্বরম প্রশ্ন করেন, এতে বড়াই করার কী আছে? এ তো পাটিগণিতের চক্রবৃদ্ধির স্বাভাবিক নিয়মেই হবে। কারণ, অর্থনীতি সংখ্যার হিসেবে প্রতি বছর ১২% হারে বাড়ছে। জিডিপি ২০১৭ সালে ২.৫ লক্ষ কোটি ছুঁয়েছে। ফলে ছ’বছরে তা দ্বিগুণ হবেই।

স্বাভাবিক নিয়মে অর্থনীতি যেখানে ৫ লক্ষ কোটিতে পৌঁছবে, সেখানে তা নিয়ে আগামী লোকসভা ভোটে ঢাক পেটানোই মোদী সরকারের পরিকল্পনা কি না— এই প্রশ্নের আজ উত্তর দিতে পারেননি অর্থমন্ত্রী। তার বদলে পাল্টা আক্রমণের রাস্তা নিয়ে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘বিষয়টা এমনই হলে আমরা এখানে কী করছি? সরকার কেন আছে? এই কারণেই কি ইউপিএ অর্থনীতির দিকে নজর দেয়নি? ভাবা হয়েছিল, অর্থনীতি তো এমনিতেই দ্বিগুণ হবে, আমরা নিজেদের আয় বাড়ানোয় নজর দিই! প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী কী বোঝাতে চাইছেন?’’ চিদম্বরমের জমানায় মন্ত্রকের নানা সিদ্ধান্ত নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন নির্মলা। কিন্তু জিডিপি ৫ লক্ষ কোটিতে সত্যিই স্বাভাবিক নিয়মে পৌঁছবে কি না, তার জবাব দেননি।

কংগ্রেস নেতাদের বক্তব্য, চিদম্বরম মোক্ষম প্রশ্ন তুলেছেন। তাই নির্মলা উত্তর খুঁজে না পেয়ে পাল্টা আক্রমণ করেছেন। শুধু ইউপিএ-জমানা নয়, স্বাধীনতার পরে প্রথম ৬০ বছরে কী হয়েছে, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘‘চিদম্বরম তাচ্ছিল্য, অপমান ও কটাক্ষ করছেন। কংগ্রেস আমলে অর্থনীতি কেন দ্বিগুণ হয়নি। তখন কেন হিন্দু বৃদ্ধির হার চাপানো হয়েছিল।’’