একে রয়েছে চাহিদার অভাবে কাহিল অর্থনীতি নিয়ে দুশ্চিন্তা। তার উপরে বাজেটে বাড়তি সারচার্জ চাপায় ভারতের বাজার থেকে বিদেশি আর্থিক সংস্থাগুলি নাগাড়ে লগ্নি তুলছে।  এই দুই সমস্যার সমাধানে কেন্দ্রের হস্তক্ষেপের আশায় বৃহস্পতিবার চাঙ্গা হল শেয়ার বাজার। সেনসেক্স উঠল ৬৩৬.৮৬ পয়েন্ট। পাঁচ দিন পড়ার পরে ডলারে টাকার দামও বেড়েছে এ দিন। ২০ পয়সা পড়ে এক ডলার হল ৭০.৬৯ টাকা। 

বাজারে খবর, শিল্পের সাহায্যে ত্রাণ দিতে পারে কেন্দ্র। কমতে পারে সারচার্জের বোঝা। বিশেষজ্ঞদের দাবি, বাজারে অক্সিজেন জুগিয়েছে এই দুই ইঙ্গিত। আজই অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা বিদেশি আর্থিক সংস্থার। 

বিশেষজ্ঞেরা অবশ্য সন্দিহান, এই পদক্ষেপের পরেও বাজারে স্থিতিশীলতা ফিরবে কি না। স্টুয়ার্ট সিকিউরিটিজের চেয়ারম্যান কমল পারেখ বলেন, ‘‘বাজার চিন্তিত সংস্থাগুলির আর্থিক ফল নিয়ে। যা এখনও তেমন আশাজনক নয়।’’ আর ক্যালকাটা স্টক এক্সচেঞ্জের প্রাক্তন ডিরেক্টর এস কে কৌশিক বলেন, ‘‘বৃষ্টিতে ঘাটতি বা পরে বেশি বর্ষায় বন্যা— দুটোতেই কৃষি ধাক্কা খেতে পারে। সেটাও চিন্তা।’’