সুইৎজারল্যান্ডের বিভিন্ন ব্যাঙ্কে ভারতীয়দের গচ্ছিত রাখা কালো টাকার হদিশ চায় দিল্লি। গ্রাহকদের বিস্তারিত তথ্য আদানপ্রদানের ব্যাপারে চুক্তিও হয়েছে দুই দেশের মধ্যে। সেই অনুযায়ী শীঘ্রই অন্তত ৫০ জনের নাম হাতে পেতে চলেছে ভারত। সূত্রের খবর, এই তালিকায় যেমন প্রযুক্তি, টেলিকম, রিয়েল এস্টেট, আর্থিক পরিষেবা-সহ বহু ক্ষেত্রের একাধিক ব্যবসায়ীর নাম রয়েছে, তেমনই রয়েছে বেশ কিছু বেনামি অ্যাকাউন্ট। 

২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকেই কর ফাঁকি দিয়ে বিদেশের ব্যাঙ্কে গচ্ছিত টাকার মালিকদের বিষয়ে তথ্য জানতে তৎপর হয়েছে নরেন্দ্র মোদীর সরকার। সেই উদ্দেশ্যে সুইৎজারল্যান্ড-সহ বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তথ্য আদানপ্রদানের বিষয়ে চুক্তিবদ্ধও হয়েছে তারা।  

এই চুক্তির অঙ্গ হিসেবেই গত কয়েক সপ্তাহ ধরে বিজ্ঞপ্তি জারি করে তাদের ব্যাঙ্কগুলিতে বিদেশি গ্রাহকদের তালিকা প্রকাশ করে আসছে সুইৎজারল্যান্ড সরকার। দেখা গিয়েছে, প্রায় প্রতিটি তালিকায় কোনও না কোনও ভারতীয়ের নাম রয়েছে। সূত্রের খবর, এমন বেশ কয়েক জনের নাম ওই তালিকায় রয়েছে যাঁদের নাম ফাঁস হয়ে যাওয়া এইচএসবিসি তালিকায় ছিল।