• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পুলিশ হাসপাতাল এ বার সাধারণের জন্যও, নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর, দেখে এলেন আহত কনস্টেবলকে

Mamata Banerjee
আহত কনস্টেবলকে দেখতে হাসপাতালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: কলকাতা পুলিশের সৌজন্যে।

Advertisement

কলকাতা পুলিশ হাসপাতালের অর্ধেক অংশে এ বার থেকে চিকিৎসা পাবেন সাধারণ মানুষও। এসএসকেএমের সঙ্গে যুক্ত করা হবে পুলিশ হাসপাতালের ওই অংশ, নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাকি ৫০ শতাংশ সংরক্ষিত থাকবে পুলিশ কর্মীদের জন্য।

সোমবার ‘সেফ ড্রাইভ-সেভ লাইফ’ দিবস উপলক্ষে হরিশ মুখার্জি রোড এবং বেণীনন্দন স্ট্রিটের সংযোগস্থলের অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমাদের এই উদ্যোগে ২০১৬ সাল থেকে কলকাতায় দুর্ঘটনা কমেছে ৩৫ শতাংশ। কমেছে দুর্ঘটনায় মৃত্যুর সংখ্যাও। রাজ্যেও দুর্ঘটনা এবং মৃত্যু অনেকটাই কমেছে।’’

মুখ্যমন্ত্রী এ দিন বেণীনন্দন স্ট্রিটের অনুষ্ঠানে যাওয়ার আগে কলকাতা পুলি‌শ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ট্রাফিক পুলিশকর্মী তপন ওরাঁওকে দেখতে যান। সেখানে তিনি তপনের হাতে ৫০ হাজার টাকার একটি চেক তুলে দেন। সেখানে কলকাতার নগরপাল-সহ উপস্থিত ছিলেন শীর্ষ পুলিশকর্তারা।

সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফের প্রচারে কলকাতা পুলিশের মোটরসাইকেল মিছিল। ছবি: কলকাতা পুলিশের সৌজন্যে।

আরও পড়ুন: বিদ্রোহীদের জায়গা করে দিতে কর্নাটকে কংগ্রেসের সব মন্ত্রীর পদত্যাগ​

গত সপ্তাহে কড়েয়া থানা এলাকায় সৈয়দ আমির আলি অ্যাভিনিউতে একটি শপিং মলের কাছে নাকা চেকিংয়ের সময় একজন হেলমেটহীন বাইক চালককে ধরতে যান তপন। পূর্ব ট্রাফিক গার্ডের কর্মী তপনকে দেখে ওই বাইক চালক পালাতে গিয়ে এক পথচারীকে ধাক্কা মারে। এরপর তপন সেই বাইকের পিছনের অংশ ধরে ফেললে, ওই চালক বাইকের সঙ্গে রাস্তায় পড়ে যাওয়া তপনকে হেঁচড়াতে হেঁচড়াতে নিয়ে যায়। সেই চালক এখনও অধরা।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন তপনের সঙ্গে দেখা করে তপনের সাহসের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন পুলিশকে এ ভাবেই সাহসের সঙ্গে কাজ করতে হবে। এর পর তিনি সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফের অনুষ্ঠানে তপনের কথা উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, গত একমাস ধরে রাতে এই নাকা চলছে। গায়ক শিলাজিতের ছেলে ধী মজুমদারের নাম না করে তিনি বলেন, ‘‘ নাকা চেকিংয়ে গাঁজা ড্রাগসের মত জিনিসও ধরা পড়ছে। রাতের কলকাতায় বেআইনি কার্যকলাপ বন্ধ হবে।’’  তিনি জানান, এই বিশেষ পুলিশি অভিযান চলবে। রাজ্য পুলিশ এলাকাতেও এ রকম নাকা চেকিং করা হবে বলে জানান তিনি। রাজ্য সরকারের সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘‘আমাদের দেখে ওড়িশা এবং ঝাড়খণ্ড সরকার পথনিরাপত্তা নিয়ে সরকারি প্রকল্প শুরু করেছে।’’

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এ দিন বার বার বাইক চালকদের হেলমেট পরার ব্যপারে জোর দেন। তিনি বলেন,  এক-দু’মিনিটের তাড়াহুড়ো প্রাণঘাতী হতে পারে। তাই বেপরোয়া গাড়ি চালানো থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করেন।

আরও পড়ুন: ‘ব্যাঙ লাফিয়ে’ দিলীপ ঘোষের পায়ে পড়লেন রেলকর্তা!​

এ দিন কলকাতা পুলিশের উদ্যোগে ৩০০ মোটরবাইকের একটি মিছিল কলকাতা প্রদক্ষিণ করবে। পথনিরাপত্তা সংক্রান্ত সচেতনতা বাড়ানোর জন্য এই মিছিল। মুখ্যমন্ত্রী এ দিন বলেন, ‘‘আমরা অনেক সময় পুলিশের সমালোচনা করি। কিন্তু এটাও মাথায় রাখতে হবে যে রোদ ঝড় জলে দাঁড়িয়ে ওরা কাজ করেন।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের YouTube Channel - এ।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন