×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৮ জুন ২০২১ ই-পেপার

Bengal Polls: হাথরসের ঘটনা মানুষ ভোলেনি, ধূপগুড়ির সভায় বিজেপি-কে নিশানা মিমির

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলপাইগুড়ি ১৪ এপ্রিল ২০২১ ২১:১৩
ধূপগুড়িতে তৃণমূলের সভায় মিমি।

ধূপগুড়িতে তৃণমূলের সভায় মিমি।

পঞ্চম দফার নির্বাচনের প্রচারের শেষ দিনে ধূপগুড়িতে এলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। ধূপগুড়ির তৃণমূল প্রার্থী তথা বিদায়ী বিধায়ক মিতালি রায়ের সমর্থনে বুধবার ভোট প্রচার করেন তিনি।
প্রকাশ্য জনসভায় ২০ মিনিটের বক্তব্য রাখেন সাকিন জলপাইগুড়ির বাসিন্দা মিমি। প্রথমে বিজেপি-র উদ্দেশে আক্রমণাত্মক ছিলেন অভিনেত্রী। বিভিন্ন প্রসঙ্গের উল্লেখ করে বিজেপি-কে একহাত নেন। বক্তব্যে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দুজনকেই বিঁধেছেন তিনি।
মিমি বুধবার বলেন, ‘‘উত্তরপ্রদেশের হাথরসের ধর্ষণ-কাণ্ড এখনও মানুষ ভোলেনি। নারীদের সম্মান দিতে জানে না এই কেন্দ্রীয় সরকার।’’ বিজেপি-র সোনার বাংলা স্লোগানের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, ‘‘সোনার বাংলা গড়বে। সোনার বাংলা আছে বলেই বিজেপি-র নজর পশ্চিমবঙ্গে। আমাদের সোনার বাংলা আমাদেরই থাকবে। কোনও বাইরের লোকের হাতে তুলে দিতে রাজি নই। মানুষ জানেন বিপদের সময় পাশে দাঁড়িয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। তাই মমতাদির প্রার্থীদেরকেই ভোট দেবেন। যাঁরা নিজেদের মেয়েকে নিরাপত্তা দিতে জানেন না, তাঁদেরকে কোনওভাবেই আপনারা ভোট দেবেন না।’’

Advertisement

ধূপগুড়ির তৃণমূল প্রার্থী মিতালিকে জয়ী করার আহ্বান জানিয়ে মিমি বলেন, ‘‘আমি জলপাইগুড়ির মেয়ে। জলপাইগুড়ির বিভিন্ন জায়গায় ঘুরেছি। তাতে আমি যা বুঝতে পেরেছি, শুধুমাত্র ধুপগুড়ি নয়, জলপাইগুড়ি জেলার সবক’টি আসনেই তৃণমূল জিততে চলেছে।’’
অন্যদিকে, বুধবার বিজেপি-র তরফে বিশাল ‘রোড শো’ করা হয় দলের প্রার্থী বিষ্ণুপদ রায়ের সমর্থনে। ধূপগুড়ি বিধানসভার সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী অধ্যাপক প্রদীপকুমার রায় ধুপগুড়ি পৌরসভা ১৬টি ওয়ার্ডে হুডখোলা গাড়িতে ভোট-প্রচার চালান।

Advertisement