×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৩ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

দত্তক নেওয়ার ব্যাপারে কী ভাবে সুস্মিতার ছোট মেয়ে? জানালেন খোদ অভিনেত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৭ এপ্রিল ২০২১ ২১:০৪
রেনে, সুস্মিতা ও আলিশা

রেনে, সুস্মিতা ও আলিশা

রেনে এবং আলিশা— ২ মেয়ে নিয়েই গোটা জগৎ তাঁর। গর্ভে ধারণ করেননি ঠিকই, কিন্তু ভালবাসায় কোনও খামতি নেই। দত্তক নেওয়া ২ কন্যার কাছ থেকে কখনও সত্য লুকোননি অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন। বরং তাঁর লালন পালনের ফলে তাঁর মেয়েরাও দত্তক নেওয়ার মূল্য সম্পর্কে অবগত। ২৪ বছর বয়সে রেনেকে দত্তক নেন সুস্মিতা। ২০১০ সালে আলিশা আসে তাঁর জীবনে। মঙ্গলবার সুস্মিতা যে ভিডিয়োটি পোস্ট করেছেন ইনস্টাগ্রামে, সে কথার প্রমাণ সেটিই।

পুরনো সেই ভিডিয়োয় দেখা যাচ্ছে, ছোট মেয়ে আলিশা একটি লেখা পড়ছে। ১১ বছরের খুদের সেই রচনার মূল বক্তব্য, দত্তক নিলে একটি শিশু তার বেঁচে থাকার অধিকার পায়। এর বদলে মিলবে অঢেল ভালবাসা এবং আনন্দ।

Advertisement

টুইটারে সেই ভিডিয়োটি পোস্ট করে সুস্মিতা লিখলেন, ‘আলিশা আমায় উদ্বুদ্ধ করে বার বার। দুগ্গা দুগ্গা। হৃদয় থেকে জন্ম নিয়েছে সে’। আলিশা যে লেখাটি পড়ছিলেন, তার ‌মূল বার্তা ছিল ‘‘আমি বিশ্বাস করি, অনাথ আশ্রম থেকে শিশুদের দত্তক নিলে আপনি আনন্দে থাকবেন। সেও বাঁচার অধিকার পাবে। আপনি হয়তো ভাবছেন, একটি শিশুকে জন্ম দেওয়ার চাইতে দত্তক নিলে তার দায়বদ্ধতা অনেক বেশি। কিন্তু তা নয়। দু’টি পদ্ধতির মধ্যে আদপে কোনও পার্থক্য নেই। দত্তক নিলে আপনি সেই শিশুটিকে জীবন দিতে পারবেন, যাকে তার বাবা-মা ফেলে গিয়েছেন। এক প্রকারে জীবন বাঁচাচ্ছেন আপনি।’’

Advertisement