×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

গৌরব আমার বন্ধু, দেবলীনার সঙ্গেও ভাল বন্ধুত্ব হয়ে গিয়েছে: অনিন্দিতা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা২৪ নভেম্বর ২০২০ ১৮:১৪
অনিন্দিতার সঙ্গে গৌরব এবং দেবলীনা।

অনিন্দিতার সঙ্গে গৌরব এবং দেবলীনা।

সিনেমা, ধারাবাহিক, ওয়েব সিরিজ— তিন প্ল্যাটফর্মেই এখন পরিচিত মুখ অনিন্দিতা বসু। সম্প্রতি শুরু করেছেন নতুন চ্যাট শো। নাম ‘ইস্ট স্টাইল’।

ইতিমধ্যেই এসভিএফ-এর প্রযোজনায় এই শো বেশ জনপ্রিয়। আড্ডা, খুনসুটি, মজার পাশাপাশি কলকাতায় ফ্যাশন নিয়ে চর্চা বাড়িয়ে তোলাই ‘ইস্ট স্টাইল’-এর মূল উদ্দেশ্য। সঞ্চালকের ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে অনিন্দিতাকে এবং অতিথির আসনে থাকছেন টলিউডের বিখ্যাত তারকারা।

এখনও পর্যন্ত মধুমিতা সরকার, সৌরসেনী মৈত্রকে এই শো-তে অতিথি হিসাবে দেখা গিয়েছে। আনন্দবাজার ডিজিটালকে অনিন্দিতা বললেন, “কয়েক মাস আগেই আমি আর মধুমিতা ‘লাভ আজ কাল’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করেছিলাম। সেখানে থেকেই বেশ ভাল বন্ধুত্ব আমাদের। আমি ওকে আমার শোতে আসার কথা বললে ও রাজি হয়।” অন্য দিকে, সৌরসেনীর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সৌরসেনী তাঁর থেকে বয়সে অনেকটা ছোট। তিনি ফ্যাশনকে কী ভাবে দেখেন, সেটা জানার জন্যই তাঁকে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়।

Advertisement

আরও পড়ুন: উত্তম ভালবাসতেন, শাশুড়ির অনুরোধে বিয়ে-বৌভাতে তাই বেনারসিতেই সাজবেন দেবলীনা

‘ইস্ট স্টাইল’-এর নতুন এপিসোডে অনিন্দিতার অতিথি হিসেবে দেখা গিয়েছে তাঁর প্রাক্তন স্বামী গৌরব চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর হবু স্ত্রী দেবলীনা কুমারকে। খুব সহজ ভাবেই তিন জনকে আড্ডায় মেতে উঠতে দেখা যায় সেখানে। তার সঙ্গেই চলতে থাকে অবাধ হাসিঠাট্টা।

কিন্তু অনেকের মনেই প্রশ্ন, হঠাৎ গৌরব-দেবলীনা কেন?

অনিন্দিতার স্পষ্ট উত্তর: “আমার একটা মিষ্টি জুটি দরকার ছিল। আমি চেয়েছিলাম ওরা আমার অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করুক। আমি এ রকম অনেককেই চিনি যারা ডিভোর্সের পরেও একে অন্যের সঙ্গে দেখা করে, কথা বলে। গৌরব আজও আমার খুব ভাল বন্ধু। দেবলীনার সঙ্গেও আমার বেশ ভাল বন্ধুত্ব তৈরি হয়েছে।”

আরও পড়ুন: চলে গেলেন বলিউডের জনপ্রিয় টেলি-অভিনেতা আশিস রায়

অনিন্দিতার কথায়, তাঁরা অতীতকে অনেকটা পিছনে ফেলে এসেছেন। নিজেদের জীবন নিয়ে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছেন দু’জনেই। তিনি মনে করেন, তাঁরা দু’জনেই নিজেদের মতো করে ভাল আছেন। তাই মনের মধ্যে ক্ষোভ পুষে রাখা বা শুধুমাত্র লোক দেখানোর জন্য একে অন্যকে এড়িয়ে যাওয়াটা অর্থহীন।

Advertisement