Advertisement
২৪ জুলাই ২০২৪
LSD 2

‘আমাকে অভিনয় ভুলে যেতে বলেছিলেন’, দিবাকরের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা শোনালেন বাংলার অনুপ্রভা

দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘এলএসডি ২’ ছবিতে একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন কলকাতার রূপান্তরিত নারী ও সমাজকর্মী অনুপ্রভা দাস মজুমদার। আনন্দবাজার অনলাইনকে শোনালেন শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা।

Anuprabha Das Mazumder shares her experience working with Dibakar Banerjee in LSD 2

অনুপ্রভা দাস মজুমদার ও দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২১ জুন ২০২৪ ২০:২১
Share: Save:

প্রেক্ষাগৃহের পর দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাম্প্রতিক ছবি ‘এলএসডি ২’ এখন ওটিটিতে দেখা যাচ্ছে। প্রেক্ষাগৃহে ছবিটি খুব বেশি সংখ্যক দর্শক দেখার সুযোগ পাননি। কিন্তু ওটিটিতে আসার পর পরিচিতদের থেকে প্রতিক্রিয়াও তাঁর কাছে বেশি আসছে।

অনুপ্রভা দাস মজুমদার। রূপান্তরিত নারী ও সমাজকর্মী। জীবনে ক্যামেরার সামনে প্রথম অভিনয়। তা-ও আবার দিবাকরের ছবিতে! পরিসরে স্বল্প হলেও শক্তিশালী চরিত্র। পরিচালকের সঙ্গে কী ভাবে তাঁর যোগাযোগ হয়েছিল? অনুপ্রভা বললেন, ‘‘ছবির সহকারী পরিচালক আমার এবং আমার স্বামীর বন্ধু। তিনিই আমার সঙ্গে যোগাযোগ করেন।’’ সেই মতো অডিশন রেকর্ড করে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন অনুপ্রভা। পরে দিবাকর নিজেই তাঁকে ফোন করে সুখবর জানান।

অল্প বয়সে নৈহাটিতে থাকাকালীন নিয়মিত নাটকে অভিনয় করেছেন অনুপ্রভা। তবে ক্যামেরার সামনে অভিনয় এই প্রথম। দিবাকরের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা কী রকম? অনুপ্রভার কথায়, ‘‘খুব ভাল। সবচেয়ে ভাল লেগেছিল, মানুষটা খুবই সাধারণ। মুম্বই সম্পর্কে আমাদের একটা অন্য রকম ধারণা থাকে। তিনি আমার সেই ধারণা ভেঙে দিয়েছেন।’’

অনুপ্রভার কথায় দিবাকর তাঁর কাছে ‘পাড়ার কোনও দাদা’র মতো। সেই প্রসঙ্গ ধরেই উদাহরণ দিলেন তিনি। বললেন, ‘‘ওঁর স্ত্রীও ফ্লোরে আসতেন। যেখানে প্রয়োজন নেই, এসি বন্ধ করে দিতেন। কারণ, ওঁরা দু’জনেই খুব পরিবেশ সচেতন।’’ অনুপ্রভা জানালেন, সেটে দিবাকর তাঁর সঙ্গে বাংলায় কথা বলতেন। হেসে বললেন, ‘‘কিছু ক্ষণ পর সকলে বুঝবে না বলে তিনি কিন্তু আবার হিন্দিতে কথা বলতেন।’’

Anuprabha Das Mazumder shares her experience working with Dibakar Banerjee in LSD 2

‘এলএসডি ২’ ছবির শুটিং ফ্লোরে অনুপ্রভা। ছবি: সংগৃহীত

ছবিতে তিনটে গল্প। শেষ গল্পে এক জন মহিলা পুলিশ অফিসারের চরিত্রে রয়েছেন অনুপ্রভা। গত বছর জুন মাস নাগাদ মুম্বইয়ে তাঁর অংশের শুটিং হয়েছিল। জীবনের প্রথম অভিনয়ের ক্ষেত্রে ফ্লোরে দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতো ব্যক্তিত্ব থাকলে টেনশন হওয়া স্বাভাবিক। কিন্তু অনুপ্রভা জানালেন, তাঁর যাবতীয় ভয় দূর করে দিয়েছিলেন স্বয়ং পরিচালক। অনুপ্রভার কথায়, ‘‘তিনি বললেন, ‘অভিনয় করার প্রয়োজনই নেই। এক দম নিজের মতো করো’।’’

এই ছবির সঙ্গে একাধিক স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে অনুপ্রভার। তবে বললেন, ‘‘এমন ক্ষেত্রে সাধারণত কোনও রূপান্তরকামীর চরিত্রেই অভিনয় করার সুযোগ আসে। কিন্তু, সেখানে তিনি আমাকে একজন সাধারণ মহিলার চরিত্রে সুযোগ দিয়েছিলেন। এই বিষয়টা আমার কাছে খুব বড় প্রাপ্তি।’’

আগামী দিনে অনুপ্রভা কি আরও বেশি করে অভিনয়ে আসতে ইচ্ছুক। হেসে বললেন, ‘‘অনেকেই বলেছেন যে, তাঁরা আমাকে আরও নানা ধরনের চরিত্রে দেখতে আগ্রহী। সুযোগ পেলে আমার কোনও আপত্তি নেই।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE