• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সলমনের ‘ভারত’ কি দেশজয় করতে পারবে?

bharat
নামভূমিকায় রয়েছেন সলমন খান। চিত্র: টুইটার

Advertisement

ইদ মানেই সলমন খান। দাবাং থেকে সুলতান— ইদে মুক্তি পাওয়া তাঁর আগের সব ক’টি সিনেমাই হিট। এ বারও কি তবে ‘ভারত’-এ ‘ভাই ম্যাজিক’ বজায় থাকবে?

ভারত সিনেমায় নাম ভূমিকায় রয়েছেন সলমন, তাঁর প্রেমিকার ভূমিকায় ক্যাটরিনা কইফ, নাম কুমুদ রায়না। সিনেমার প্রথমার্ধে টানটান উত্তেজনা। দেখানো হয়েছে আবেগে মোড়া ভারতের কাহিনি। যেখানে রয়েছে বাবা-বোনের কাছ থেকে ভারতের বিচ্ছেদের গল্প। আবার যৌবনে সার্কাসের মরণকূপে বাইক চালানো অপ্রতিরোধ্য এক যুবকের কাহিনিও ভারত। কুমুদ রায়না অর্থাৎ ‘ম্যাডাম-স্যার’ ক্যাটরিনার ‘ভারত’-এর জীবনে ঢুকে পড়া বেঁচে থাকার রং পাল্টে দেয়। দেশভাগ, পরিবারকে হারানো— এক জন সাধারণ মানুষের জীবনে কতটা প্রভাব ফেলতে পারে তার কাহিনিও ‘ভারত’।

সিনেমার শুরুতেই পর্দায় নজর কাড়ে ৭০ বছরের এক বৃদ্ধ— ভারত। সলমনকে বৃদ্ধ রূপে দেখতে বেশ ভাল লাগলেও ভাইজানের কাছে আরও পরিণত অভিনয় প্রত্যাশা করেছিলেন দর্শকরা। ক্যাটরিনা কিন্ত নিজেকে প্রমাণ করার ক্ষেত্রে উতরে গিয়েছে। বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনি আর বলিউডের বার্বি ডল নন। বিনা সিঁদুরে কোনও অঙ্গীকার ছাড়াই কুমুদ তার জীবন কাটিয়ে দিল ভারতের সঙ্গে! ডিজিটাল ভারতকে ‘লিভ-ইন’ সম্পর্কের গুরুত্ব বোঝানোর এক বার্তাও পরোক্ষে দেওয়া হয়েছে এই গল্পে।

‘ভারত’ দেখে দর্শকরা কী বললেন, দেখুন ভিডিয়ো:

সব ঠিক হয়েও কোথাও যেন খামতি থেকে যায়! অপ্রয়োজনীয় জোকস,নাচ-গানের চাপে ভারতের চলন জমে ওঠে না ঠিক ভাবে। সাধারণ এক ভারতীয়ের দেশভাগের দাগ বুকে নিয়ে পরিবারকে এক করার চেষ্টা পর্দায় ফুটে উঠলেও মনে দাগ কাটে না। বিরতি শেষে ভারতের বয়সের সঙ্গে সঙ্গে গল্পেরও বয়স বেড়ে গিয়েছে যেন! কাহিনির মন্থর গতি দর্শকদের কিছুটা নিরাশ করে। এ ক্ষেত্রে দায় পরিচালকের। ইতিহাস তৈরি করতে পারত যে ছবি, পরিচালকের অপারদর্শিকতায় সেটা কি তবে মাঠে মারা গেল!

ইদে সলমনের আগের সিনেমাগুলো প্রতি বারই বক্সঅফিসের রেকর্ড ভেঙেছে। এ বার প্রোমোশন থেকে শুরু করে দর্শকদের উত্তেজনা ও প্রতিক্রিয়া— সবই কিছুটা যেন ঝিমোনো। প্রথম দিনের প্রথম শো-তে সলমনের প্রতিটা সিনেমায় টিকিটের হাহাকার হলেও, এ বার কিন্ত বহু জায়গায় প্রথম শোতেও  হল ভরল না। তবে কি সলমনের জাদু ফিকে হচ্ছে ধীরে ধীরে?

প্রথম শো শেষে দর্শকদের মিশ্র প্রতিক্রিয়া মিলেছে। কলকাতার ভাইজান ভক্তদের বেশিরভাগই বলেছেন এই সিনেমা সলমনের কেরিয়ারের অন্যতম সেরা। তবে, দেশ জুড়ে তেমন প্রতিক্রিয়া কিন্তু মেলেনি। তাঁদের মতে, ‘ভারত’ চেষ্টা করেও মনে অতটা দাগ কাটতে পারেনি। হলের সামনে প্রতি বারের মতোই ভক্তদের দাপাদাপি নজরে পড়লেও সিনেমা দেখে বেরনোর পর তেমন উত্তেজনাও চোখে পড়েনি দেশের কোথাও।

ইদে সলমন বহু বারই বক্স অফিসের রেকর্ড ভেঙেছেন। এখনই হয়তো বলা যাবে না, এ বারও তিনি পারবেন কি না! যদিও বক্স অফিসে ১০০ কোটির রেকর্ড এখন বিরল কোনও ব্যাপার নয়। প্রাথমিক ভাবে যেটুকু জানা গিয়েছে, ভারতের প্রথম দিনের বক্সঅফিস কালেকশন ৪০ থেকে ৪৫ কোটি টাকা মতো হতে পারে। সলমনের অন্যান্য সিনেমার প্রথম দিনের কালেকশনের তুলনায় যা প্রায় কিছুই নয়। বক্সঅফিসে ভারতের ১০০ কোটির গণ্ডি পেরোনো নিয়েও তাই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: ক্যাটরিনার সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে কী বললেন মহম্মদ কইফ?

আরও পড়ুন:শুধু বিজ্ঞাপন থেকে অমিতাভ-অক্ষয়-শাহরুখরা কত পান জানেন? চোখ কপালে উঠতে পারে​

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন