Advertisement
২৩ জুন ২০২৪
Ankita Lokhande

পিতৃবিয়োগে শোকাচ্ছন্ন অঙ্কিতা লোখন্ডে, পাশে দাঁড়ালেন সতীর্থেরা

অঙ্কিতা অভিনীত হিন্দি সিরিয়াল ‘পবিত্র রিস্তা’ সিরিয়াল দর্শকদের মনে আলোড়ন তুলেছিল। ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অফ ঝাঁসি’ ছবির মাধ্যমে তিনি বলিউডে পা রাখেন।

বাবার শেষকৃত্য অঙ্কিতা লোখন্ডে।

বাবার শেষকৃত্য অঙ্কিতা লোখন্ডে। ছবি: সংগৃহীত।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
মুম্বই শেষ আপডেট: ১৩ অগস্ট ২০২৩ ১৪:০৯
Share: Save:

হিন্দি ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী অঙ্কিতা লোখন্ডের পরিবারে শোকের ছায়া। শনিবার প্রয়াত হলেন অভিনেত্রীর বাবা শশীকান্ত লোখন্ডে। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৬৮ বছর। রবিবার সকালে মুম্বইয়ের ওশিওয়াড়া শ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

রবিবার সমাজমাধ্যমে বাবার শেষকৃত্যে অঙ্কিতার ভিডিয়ো সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। অভিনেত্রীর সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্বামী ভিকি জৈন। ছবিতে দেখা যায় বাবার শেষকৃত্যে ভেঙে পড়েছেন অঙ্কিতা। অভিনেত্রীকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন ভিকি। বাকিদের সঙ্গে বাবার মরদেহে কাঁধ দিতেও দেখা গিয়েছে অঙ্কিতাকে। শেষকৃত্যে অভিনেত্রীর পাশে দাঁড়াতে ইন্ডাস্ট্রির সতীর্থদের একাংশ হাজির হয়েছিলেন। তবে এখনও পর্যন্ত বাবার মৃত্যু প্রসঙ্গে কোনও বিবৃতি দেননি অঙ্কিতা। সূত্রের খবর, শশীকান্ত দীর্ঘ দিন ধরেই বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন। মাঝেমধ্যেই বাবার সঙ্গে তোলা ছবি ইনস্টাগ্রামে অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিতেন অঙ্কিতা। জুন মাসে পিতৃদিবসে বাবার কপালে তাঁর চুম্বন এঁকে দেওয়া একটি ছবি পোস্ট করেন অঙ্কিতা। বাবার যে শারীরিক অবস্থা বিশেষ একটা ভাল নয়, তা ওই ছবির মাধ্যমেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন অভিনেত্রী।

Ankita Lokhande with her father

বাবার সঙ্গে অঙ্কিতা লোখন্ডে। — ফাইল চিত্র।

এক সময় অঙ্কিতা অভিনীত ‘পবিত্র রিস্তা’ সিরিয়াল দর্শকদের মনে আলোড়ন তুলেছিল। তার পর সুশান্ত সিংহ রাজপুতের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে গুঞ্জন উঠেছিল বলিপাড়ায়। যদিও সুশান্ত পর্ব এখন অতীত। অঙ্কিতা এখন ভিকি জৈনের ঘরনি। অঙ্কিতার বড় পর্দায় অভিষেক হয় কঙ্গনা রানাউত অভিনীত ‘মণিকর্ণিকা: দ্য কুইন অফ ঝাঁসি’ ছবিতে। ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবিতে অভিনয়ের পরেই বিয়ে হয় তাঁর।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE