Advertisement
২৪ জুলাই ২০২৪
Pathaan Contrversy

‘পাঠান’ প্রসঙ্গে মুখ খুললেন সেন্সর বোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারপার্সন, কী বললেন তিনি?

দু’বছর সেন্সরবোর্ডের শীর্ষে ছিলেন পহলাজ নিহালনি। তাঁর হাত দিয়েই মুক্তি পেয়েছিল ‘পদ্মাবত’, ‘বজরঙ্গী ভাইজান’।

‘পাঠান’ নিয়ে কী বললেন সেন্সরবোর্ডের প্রাক্তন অধিকর্তা পহলাজ নিহালনি?

‘পাঠান’ নিয়ে কী বললেন সেন্সরবোর্ডের প্রাক্তন অধিকর্তা পহলাজ নিহালনি? ছবি: সংগৃহীত।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ৩০ ডিসেম্বর ২০২২ ১৩:০৯
Share: Save:

বৃহস্পতিবার নির্দেশ ‘পাঠান’ ছবির বেশ কিছু দৃশ্যে পরিবর্তনের জন্য নির্দেশ দিয়েছিল সেন্সর বোর্ড (সিবিএফসি)। একই সঙ্গে ছবির বিতর্কিত ‘বেশরম রং’ গানটির ক্ষেত্রেও কিছু রদবদল করতে বলে চেয়ারপার্সন প্রসূন যোশীর অধীনস্ত বোর্ড। ‘পাঠান’ নিয়ে এ বারে মুখ খুললেন সেন্সরবোর্ডের প্রাক্তন অধিকর্তা পহলাজ নিহালনি।

পহলাজের মতে, শাহরুখ খান অভিনীত ‘পাঠান’ বিতর্কের শিকার। তাঁর কথায়, ‘‘ছবি দেখে যাবতীয় পরিবর্তন করতে বলা হয়েছে। আপত্তকির দৃশ্যের ক্ষেত্রে থাকলেও, সেন্সরবোর্ডে কোনও রং বদলে ফেলার নির্দেশিকা নেই। তাই এ রকম ঘটলে সেটা অনুচিত।’’ তা হলে বোর্ড কী ভাবে এই সিদ্ধান্ত নিল? এর পিছনে ‘উপর মহলের চাপ’ থাকতে পারে বলে মনে করছেন সেন্সরবোর্ডের প্রাক্তন চেয়ারপার্সন পহলাজ।

এই প্রসঙ্গে প্রসূনকেও এক হাত নিয়েছেন পহলাজ। তাঁর কথায়, ‘‘উনি কোনও বিবৃতি দিতেই পারেন। কিন্তু বোর্ডের সঙ্গে চেয়ারপার্সনের ছবি দেখার নিয়ম নেই। ছবি নিয়ে বিতর্ক শুরু হওয়ায় হতে পারে যে উপর মহলের চাপে উনি ছবিটা দেখতে বাধ্য হয়েছেন।’’

প্রসঙ্গত, ২০১৫ থেকে দু’বছর সেন্সরবোর্ডের শীর্ষে ছিলেন পহলাজ। সেই সময় তাঁর একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়ে চলচ্চিত্র মহলে বিতর্কের সূত্রপাত ঘটে। পহলাজের দায়িত্বে থাকাকালীন সঞ্জয় লীলা ভন্সালী পরিচালিত ‘পদ্মাবত’ ছবিকে ঘিরে দেশ জুড়ে বিতর্ক শুরু হয়। সেই সময়েই মুক্তি পায় সলমন খান অভিনীত ‘বজরঙ্গী ভাইজান’। এই দুটি ছবিকেই ‘বয়কট’ করার দাবি উঠেছিল। পহলাজ জানিয়েছেন, উভয় ছবির ক্ষেত্রেই দেশের আইন-শৃঙ্খলাকে মাথায় রেখে সরকারের তরফে সিবিএফসি’র কাছে বিশেষ নির্দেশিকা এসেছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE