×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

লাল বেনারসি আর সোনার গয়নায় নীলাঞ্জনের হাতে সিঁদুর পরলেন গায়িকা ইমন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ২১:১৬
নতুন জীবনে পা দিলেন ইমন-নীলাঞ্জন।

নতুন জীবনে পা দিলেন ইমন-নীলাঞ্জন।
ছবি: সংগৃহীত

অবশেষে চলে এল শুভক্ষণ। বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন ইমন চক্রবর্তী এবং নীলাঞ্জন ঘোষ। লাল বেনারসিতে ইমন মুড়েছেন নিজেকে। সারা শরীর জুড়ে রয়েছে সোনার গয়না। অন্য দিকে নীলাঞ্জন ঘিয়ে রঙা পাঞ্জাবিতে এক্কেবারে বাঙালি বর!

ছাদনাতলায় একে অপরের দিকে তাকিয়ে মুগ্ধ বর-কনে। চার দিক থেকে উলুধ্বনির মাঝে একে অপরের গলায় মালা পরিয়ে শুরু করলেন বিয়ের আচার অনুষ্ঠান।বন্ধু অভিষেক রায় কনেকে কোলে করে বরের চারদিকে ঘুরিয়ে আনলেন। ভালবাসার মানুষের সঙ্গে শুরু নতুন জীবন। উচ্ছ্বাস ধরে রাখতে পারলেন না নীলাঞ্জন। পুরোহিত মশাইয়ের মন্ত্র পড়ার মাঝেই কাঁধ নাচিয়ে কিছুটা নেচে উঠলেন তিনি। ইমনের মুখে মৃদু হাসি।

এর পরেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন বর-কনে। ইমনের মাথা ঢাকা হল লাল লজ্জাবস্ত্রে। তাঁর সিঁথিতে সিঁদুর তুলে দিলেন নীলাঞ্জন।

Advertisement
ইমনের বিয়ের সাজ।

ইমনের বিয়ের সাজ।
ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া


বাঙ্গুর গার্ডেন, জেঠিয়া বাড়িতে সম্পন্ন হচ্ছে ইমনের বিয়ের অনুষ্ঠান। ডিজাইনার অভিষেক রায় থেকে অভিনেত্রী মানালি দে, গায়িকা শ্রাবণী সেন এবং জয়তী চক্রবর্তীর মতো তারকারা উপস্থিত হয়েছেন নবদম্পতিকে শুভেচ্ছা জানাতে।

নবদম্পতির সঙ্গে জয় সরকার এবং অভিষেক রায়।

নবদম্পতির সঙ্গে জয় সরকার এবং অভিষেক রায়।




রাত বাড়তেই জমে উঠল বিয়ের আসর। একে একে ভিড় জমাতে শুরু করলেন তারকারা। স্ত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা এবং মেয়ে আয়রাকে নিয়ে ‘নীলামন’-এর সঙ্গে ছবি তুললেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। এত দিনে ইমনের বিয়ে খাওয়ার স্বপ্নপূরণ হল জয় সরকারের। নবদম্পতির সঙ্গে খুশির মুহূর্তে ক্যামেরাবন্দি হলেন তিনিও। জয়ের সঙ্গেই উপস্থিত হয়েছে ‘সা রে গা মা পা’র গোটা টিম। আনন্দে সামিল হয়েছেন উজ্জ্বয়িনি মুখোপাধ্যায়, উপল সেনগুপ্তরাও।

নবদম্পতির সঙ্গে সৃজিত, মিথিলা এবং আয়রা।

নবদম্পতির সঙ্গে সৃজিত, মিথিলা এবং আয়রা।


২০২০ সালের দুর্গাপুজোর তৃতীয়ায় বাগদান সারেন ইমন-নীলাঞ্জন। গত রবিবার অর্থাৎ ৩১ জানুয়ারি খাতায় কলমে বিয়ে করেন তাঁরা। মঙ্গলবার সকালে একসঙ্গেই গায়ে হলুদ হয়ে বর কনের। সোনালি পাড় সাদা শাড়িতে সেজে উঠেছিলেন ইমন। মনের মানুষের সঙ্গে রং মিলান্তিতে মজে ওঠেন নীলাঞ্জন। সোনালি সুতোর কাজ করা সাদা পাঞ্জাবি পরেছিলেন নীলাঞ্জন। সেই পাঞ্জাবির উপর দিয়ে নীলাঞ্জনের বুকে হাত রেখে ছবি তোলার জন্য দাঁড়ালেন ইমন। ‘আমার নদীর যে ঢেউ, ওগো জানে কি কেউ, যায় বহে যায় কাহার পানে, কে জানে’— যা ছিল এত দিন শুধু গায়িকার কণ্ঠে, তা যেন ছবি হয়ে উঠল এই সন্ধ্যায়।

বধূরূপে ইমন।

বধূরূপে ইমন।


Advertisement