• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মাদার্স ডে-র পরেও কেন ‘মা’ এ বুঁদ সেলেব থেকে সাধারণ?

celebs with their mother
মায়ের সঙ্গে ছবি শেয়ার করেছেন সেলেবরা।

Advertisement

মাদারস ডে তো পার হয়ে গিয়েছে সেই মে মাসে। তা হলে নেটিজেন থেকে তারকা সবার ফেসবুকের দেওয়াল মায়ের জন্য শুভেচ্ছা বার্তায় ভরে উঠছে কেন বেশ কয়েকদিন ধরে? উজান গাঙ্গোপাধ্যায় থেকে কণীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, মনামি ঘোষ থেকে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত কেউই বাদ যাচ্ছেন না। কারণ খুঁজতে গিয়ে জানা গেল, শিবপ্রসাদ-নন্দিতা জুটির পরবর্তী ছবি ‘গোত্র’-র নতুন গান ‘মা’-এ বুঁদ আট থেকে আশি। গানটি গেয়েছেন অরিজিৎ সিংহ।

মায়েরা সব বোঝে। সেই যে ‘তারে জমিন পর’-এর ঈশান অবস্তি কে মনে আছে? মনে আছে ইশানের লিপে সেই গান, ‘তুঝে সব হ্যয় পাতা হ্যয় না মা’। দিনের শেষে মায়ের কোলের চেয়ে নিরাপদ আশ্রয় আর কী বা হতে পারে? হোক না সন্তানের উপর অভিমান, বিপদে পড়লে যে হাতটা আমরা বারেবারেই খুঁজি তা তো মায়েরই। বাড়ি না ফেরা পর্যন্ত ঠায় অপেক্ষা অথবা সন্তান অসুস্থ হলে রাত দিন এক করে তাঁকে সুস্থ করে তোলার দৃঢ় প্রতিজ্ঞা। মা ছাড়া আর কেই বা করতে পারে এত বড় আত্মত্যাগ? তবে মা মানে কি জন্মদাত্রী হতেই হবে? হিন্দু  পুরাণ অনুসারে, যশোদাও তো শ্রীকৃষ্ণের পালিতা মা ছিলেন। কই ছোট্ট গোপালের আবদার, দুষ্টুমি সব কিছুই তো সামলেছেন ঠিক। আসলে মা কথাটির সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে আত্মার যোগাযোগ, মনের টান। যা সমস্ত জাতি, ধর্ম, ‘গোত্র’-এর উর্ধ্বে। অরিজিতের গলায়  'গোত্র' ছবির এই নতুন গানটি এমনই এক মা-ছেলের গল্প বলে। 

 

শুনুন এই গান

 

মায়ের সঙ্গে উজান। গ্রাফিক : তিয়াসা দাস। 

এই ছবিতে মুক্তিদেবী তারেক মিঞার জন্মদাত্রী মা নন। কিন্তু তারেক তাঁর কাছে নিজের ছেলের চেয়ে কোনও অংশে কম নন। মা-ছেলের মধ্যে ঝামেলা যে হয় না তা হলফ করে বলা যায় না। ঝগড়া হয়। রাগও দেখান দুজনে। কিন্তু মুক্তিদেবীর অসুস্থতার সময়ে তারেককেই সারারাত জেগে বসে থাকতে দেখা যায় খাটের কাছে। মা- ছেলের খুব ঝগড়া একদিন। বাড়ি থেকে বার করে দিয়েছেন ছেলেকে। কথায় বলে মায়ের মন। ছেলে বাড়ির বাইরে, মা কি মুখে খাবার তুলতে পারে? বার বার ফিরে যাচ্ছেন দরজার কাছে। ওদিকে ছেলের অবস্থাও তথৈবচ। মা- ছেলের এমনই এক মিষ্টি সম্পর্কের ছবি ফুটে উঠেছে গোটা গানটি জুড়ে। ছবিতে মুক্তিদেবীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনসূয়া মজুমদার। তারেক মিঞার চরিত্রে দেখা যাবে নাইজেল আকারাকে। জন্মাষ্টমীতেই হলে আসবে এ ছবি। গানের কথাগুলিও হৃদয়ে দখিনা বাতাস এনে দেয়।

 

উচ্ছ্বসিত কণীনিকাও। গ্রাফিক : তিয়াসা দাস 

আরও পড়ুন:৩৭০-এর জের! কাশ্মীরে বন্ধ হতে পারে বলিউডের ছবির শ্যুটিং

 

আরও পড়ুন: লন্ডনের রাস্তায় হাঁটু মুড়ে কার হাতে গোলাপ তুলে দিলেন দীপিকার বর?

 

তাই তো মা চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে উজান বলছেন, “মাতৃত্বের কোনও ভাষা নেই, কোনও বিভেদ মানে না এই নিঃস্বার্থ ভালবাসা। এই গান মনে করিয়ে দেয় সেই গোপন ঈশান কোণের আদরের কথা। তারা শুধু আকাশেই পাওয়া যায় তা নয়। জমিনেও পাওয়া যায়।” অন্যদিকে গান প্রসঙ্গে কণীনিকার উচ্ছ্বসিত বক্তব্য, “গান তা শুনে আমার মায়ের কথা মনে পড়ছিল। ওই একমাত্র মানুষ এই পৃথিবীতে যার উপর রাগ করতে গেলে ভাবতে হয় না। একমাত্র মানুষ যার অভিমান ভাবায় আমাকে। আমার সব কিছু তো তারই দেওয়া।”  শুধু সেলেবই বা কেন? সাধারণ মানুষও গানের কথার সঙ্গে মায়ের ছবি পোস্ট করে ভরিয়েছেন সোশ্যাল মিডিয়ার দেয়াল। 

 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন