Advertisement
২৮ নভেম্বর ২০২২
Raj Chakrabarty

Bhotbhoti: কেউ কাউকে জায়গা ছাড়ে না, অধিকার লড়ে আদায় করতে হয়! ‘ভটভটি’ প্রসঙ্গে দাবি রাজের

বরাবর ইতিবাচক তিনি। সেই মন নিয়েই পরিচালক তথাগত মুখোপাধ্যায়, তাঁর প্রথম ছবি ‘ভটভটি’র পাশে রাজ চক্রবর্তী।

 ‘ভটভটি’-কে রাজের শুভেচ্ছা

‘ভটভটি’-কে রাজের শুভেচ্ছা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ অগস্ট ২০২২ ২১:১৮
Share: Save:

পরিচালক তথাগত মুখোপাধ্যায়কে খোলাখুলি সমর্থন জানালেন রাজ চক্রবর্তী। আনন্দবাজার অনলাইনের লাইভ আড্ডায় নিজের ছবি ‘ধর্মযুদ্ধ’ নিয়ে কথা বলার ছিল তাঁর। বদলে তাঁর অনেকটা কথা জুড়ে শুধুই তথাগত আর তাঁর প্রথম ছবি ‘ভটভটি’। সম্ভবত এই প্রথম, কোনও সংবাদমাধ্যমে আড্ডা দিতে গিয়ে এক পরিচালক আর এক পরিচালকের সমব্যথী হলেন। অসংখ্য দর্শকের সামনে রাজের অকপট স্বীকারোক্তি, ''তোমার যন্ত্রণা বুঝতে পারছি তথাগত। আমি ‘ভটভটি’র পাশে।''

Advertisement

‘ধর্মযুদ্ধ’র মুক্তির জন্য তিন বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে রাজকে। কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে তাঁর এই ছবি প্রশংসিত। খবর, ‘ভটভটি’র প্রেক্ষাগৃহ না পাওয়া নিয়েও নাকি রাজকে কাঠগড়ায় তোলা হচ্ছে। যেমন হয়েছিল সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ছবি ‘x= প্রেম’ মুক্তির সময়ে। সেই সময়ে রাজের ‘হাবজি গাবজি’ নন্দনে জায়গা পেয়েছিল। সৃজিত সুযোগ পাননি।

প্রতি সপ্তাহে ছবি-মুক্তিকে ঘিরে এই টানাপড়েন 'বাংলা ছবির পাশে দাঁড়ান' কথাটিকে কী গুরুত্বহীন করে তুলছে? আনন্দবাজার অনলাইনের তরফ থেকে প্রশ্ন ছিল রাজের কাছে। পরিচালকের বিশ্লেষণ, এই যুদ্ধ নিরন্তর। অতীতেও ছিল। আগামীতেও থাকবে। এ ভাবেই সবাইকে লড়ে নিজেকে প্রমাণ করতে হয়। এভাবেই নিজের জায়গা করে নিতে হয়।

পরিচালকের আরও দাবি, প্রথম ছবি বানানোর পরে রাজ স্বয়ং বা শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ও প্রেক্ষাগৃহ পেতেন না। নিজেদের প্রমাণ করার পরে আজ তাঁরা প্রেক্ষাগৃহ পান। এই পরীক্ষার মধ্যে দিয়ে তথাগতকেও যেতে হবে। রাজের মতে, ‘‘এমনও হতে পারে, ‘ভটভটি’ সবার ভাল লাগল। তুলনায় কম ভাল লাগল আমার ছবি। তখন হয়তো আমার ছবির প্রেক্ষাগৃহ সংখ্যা কমবে। তথাগতর ছবি দেখতে ভিড় জমাবেন সবাই।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.