বেশ কিছু দিন ধরেই শাহিদ পত্নী মীরার ‘পাবলিক অ্যাপিয়ারেন্সে’ গ্ল্যামারাস লুক, চোখ ধাঁধানো ফ্যাশন স্টাইল মুগ্ধ করছিল নেটিজেনদের। বি-টাউনে ফিসফাস চলছিল, বড় পর্দায় কি তবে অভিষেক ঘটতে চলেছে মীরার? এবার তা নিয়েই মুখ খুললেন শাহিদ।

এক সাক্ষাৎকারে শাহিদ বলেন, “বিয়ের এক বছরের মধ্যেই আমাদের প্রথম সন্তান মিশা আসে। এর ঠিক বছর দু’য়েকের মাথায় জাইনের জন্ম হয়। এই মুহূর্তে মীরার কাছে ওদের বড় করে তোলার থেকে গুরুত্বপূর্ণ আর কিছু নেই। মা হিসেবে ও খুবই নিবেদিত। ওর এখন একটাই ইচ্ছা,তা হল বাচ্চাদের সময় দেওয়া।”

শাহিদ যোগ করেন, “মীরার বয়স মাত্র ২৫। ও কী করবে,তা ভাবার জন্য ওর হাতে সারা জীবন পড়ে আছে। আর তা ছাড়া ও সিনেমায় আসবে কী না, তা সম্পূর্ণভাবে ওর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।”

আরও পড়ুন-তেল মেখে পড়ে গেল সব চুল, ঋত্বিক যখন ‘টেকো’

 

দেখে নিন মীরার ফ্যাশনেবল লুক

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

sunkissed

A post shared by Mira Rajput Kapoor (@mira.kapoor) on

 

বছর দু’য়েক আগে এক অনুষ্ঠানে মীরা জোর গলায় জানিয়েছিলেন, তিনি গৃহবধূই থাকতে চান। সন্তানের দেখভাল না করে বাইরের কাজ করা তাঁর না পসন্দ। শুধু তাই নয়, সে সময় মীরা আরও বলেন, “দিনের মাত্র এক ঘণ্টা মেয়ের সঙ্গে (মিশা) কাটিয়ে কাজে বেরিয়ে যেতে চাইনা আমি।ও তা আমার পোষ্য নয়!” সে সময় মীরার এই বক্তব্য নিয়ে কম জলঘোলা হয়নি। অনেকেই বলেছিলেন, চাকরিজীবী মায়েদের অপমান করেছেন মীরা। মা বাইরে কাজ করা মানেই যে তিনি সন্তানকে মানুষ করতে পারবেন না, সময় দিতে পারবেন না, এমনটা ভাবা ভুল। 

আরও পড়ুন-গান ছেড়ে ড্রাগে ডুবেছিলেন, ফের অডিশনের মঞ্চে রিয়েলিটি শো চ্যাম্পিয়ন

 

যদিও পরে এক সাক্ষাৎকারে নিজের বক্তব্যের সমর্থনে মীরা বলেন, “কাউকে আঘাত করা আমার উদ্দেশ্য ছিল না। হ্যাঁ, হয়ত ভাষা ব্যবহার করার ক্ষেত্রে আরও কিছুটা সংযত হওয়া প্রয়োজন ছিল আমার। কিন্তু আমি কোনও অভিনেতা নই। ‘পলিটিকালি কারেক্ট’ হতে পারব না।”

২০১৫ তে সাতপাকে বাঁধা পড়েন শাহিদ-মীরা। সে সময় শাহিদের বয়স ৩৪, আর মীরা সবে ২১। তাহলে কি সত্যিই অভিনয়ে আসবেন মীরা? সে ব্যাপারে এখনও কিছু জানাননি শাহিদ পত্নী।