Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

Aryan Khan-Sussanne Khan: আরিয়ানের গ্রেফতার আসলে ‘ডাইনি খোঁজা’-র মতো! বলছেন হৃতিকের প্রাক্তন স্ত্রী সুজান

বলিউডের ভিতরে ঐক্য থাকলেও সাধারণ মানুষের কটাক্ষ থেকে রেহাই নেই শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খানের। খারাপ সময়ে তাঁর পাশে দাঁড়ালেন সুজান।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ০৫ অক্টোবর ২০২১ ১১:৪১
Save
Something isn't right! Please refresh.
আরিয়ানের পাশে সুজান

আরিয়ানের পাশে সুজান

Popup Close

বলিউডের ভিতরে ঐক্য থাকলেও সাধারণ মানুষের কটাক্ষ থেকে রেহাই নেই শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ানের। তারকা-পরিবারের বিরুদ্ধে নানা সমালোচনা ধেয়ে আসছে। আরিয়ান গ্রেফতার হওয়ার পর সাধারণ মানুষের সঙ্গে পা মিলিয়েছেন লেখিকা শোভা দে। শাহরুখ-পুত্রের গ্রেফতার নিয়ে তাঁর বক্তব্য ছিল, ‘এই ঘটনার পর সকলের, বিশেষ করে অভিভাবকদের নড়েচড়ে বসা উচিত।’ তাঁর সেই মন্তব্য সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ পাওয়ার পর শোভা ইনস্টাগ্রামে সেই ছবি পোস্ট করেছেন। সঙ্গে লিখেছেন, ‘জরুরি’।

সেই ছবির মন্তব্য বাক্সে বলি তারকা হৃতিক রোশনের প্রাক্তন স্ত্রী সুজান খান নিজের মতামত প্রকাশ করেছেন। শোভা দে-র বক্তব্যের বিরোধিতা করে লিখেছেন, ‘আরিয়ানকে গ্রেফতার করা আসলে ‘ডাইনি খোঁজা’-র মতো। এখানে আরিয়ানের কোনও ভূমিকা নেই। সে কেবল ভুল সময়ে ভুল জায়গায় ছিল। এ রকম ঘটনা দুঃখজনক। কারণ আরিয়ান খুবই ভাল ছেলে। আমি গৌরী এবং শাহরুখের পাশে আছি।’ সুজান ছাড়াও আরও কয়েক জন আরিয়ানের পক্ষে কথা বলেছেন। বিপক্ষের মন্তব্যের সংখ্যাও নেহাত কম নয়।

Advertisement

কয়েক জন শিল্পী আরিয়ানের গ্রেফতারের খবর পেতেই টুইটারে শাহরুখের প্রতি সহানুভূতি জানিয়েছেন। পূজা ভট্ট টুইটারে শাহরুখকে উল্লেখ করে লিখেছেন, ‘আমি আপনার সঙ্গে আছি। জানি, এ কথাটিতে বিশেষ কোনও লাভ আপনার হবে না। কিন্তু মনে হল, তাই বললাম। এই কঠিন সময় আপনি পেরিয়ে যেতে পারবেন বলে আমার বিশ্বাস।’ সুনীল শেট্টি টুইট করেছিলেন, ‘তদন্ত তো শুরু হয়ে গিয়েছে। এ বার ছোট ছেলেটিকে একটু নিঃশ্বাস নিতে দিন।’ পরিচালক হন্সল মেহতা, ‘কভি হাঁ কভি না’ ছবিতে শাহরুখের সহ-অভিনেত্রী সুচিত্রা কৃষ্ণমূর্তিও তাঁদের সমর্থন জানিয়েছেন।

সুজানের মুখে যে ‘ডাইনি খোঁজা’-র কথা শোনা গিয়েছে, তার সূত্র নিহিত ইতিহাসের এক বিশেষ অধ্যায়ে। গোটা মধ্য যুগ জুড়ে ইউরোপের অধিকাংশ মানুষ বিশ্বাস করতে শুরু করেন বিভিন্ন দুর্যোগ ও প্রাণঘাতী রোগ ছড়াতে পারে ‘শয়তান’। শয়তান উপাসনা করার অজুহাতে গোটা মধ্যযুগ জুড়ে বহু মানুষকে হত্যা করে ক্যাথলিক চার্চ। ‘শয়তান উপাসক‌’ তথা ডাইনি বিদ্যা চর্চাকারীদের চিহ্নিত করতে ভ্যাটিকানের তরফে শুরু হয় ‘ডাইনি খোঁজা’ বা ‘উইচ হান্ট’। বলাই বাহুল্য, যাঁদের হত্যা করা হয়, তাঁরা সকলেই ‘শয়তান উপাসক’ ছিলেন না। ছিলেন বহু নিরপরাধ মানুষও।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement