• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

সোমবার থেকেই শুটিং শুরুর ছাড়পত্র দিল রাজ্য

Shooting
শুটিং শুরুর অপেক্ষায় টেলিপাড়া।

অবশেষে উঠল নিষেধাজ্ঞা। শনিবার সন্ধ্যায় রাজ্য সরকারের জারি করায় নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, সোমবার, ১ জুন থেকে ফের চালু করা যাবে শুটিং।

সেই নির্দেশিকাতে জানান হয়েছে, ইন্ডোর এবং আউটডোর শুটিংয় শুরু করা গেলেও এখনই  রিয়েলিটি শো-এর শুটিং চালু করা যাবে না। নির্দেশিকায় এরই পাশাপাশি বলা হয়েছে,  একটি শুটিং ইউনিটে ৩৫ জনের বেশি লোক রাখা যাবে না। যদিও সোমবার থেকেই যে শুটিং চালু করা যাবে না সে ব্যাপারে কার্যত একমত টলিপাড়া

গত বৃহস্পতিবার মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের তত্ত্বাবধানে আর্টিস্ট ফোরাম, ইম্পা, ফেডারেশন, প্রোডিউসারস গিল্ড এবং বিভিন্ন চ্যানেলের কর্মকর্তারা একটি বৈঠকে বসেছিলেন। সুরক্ষা বিধি মেনে কী ভাবে আবার শুটিং শুরু করা যায়, তাই ছিল ওই বৈঠকের প্রধান আলোচ্য বিষয়। ঠিক হয়, আগামি মঙ্গলবার,  ২ জুন উপস্থিত প্রত্যেকটি সংগঠন আলাদা আলাদা ভাবে সুরক্ষাবিধি মেনে শুটিং চালু নিয়ে নিজেদের মতামত জানাবে। সেই মিটিংয়ে যা সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে তাতে সকলে একমত হলে ৪ জুন, বৃহস্পতিবার মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের কাছে তা পেশ করা হবে। এর পর মন্ত্রীর সম্মতিক্রমে সেই পরিকল্পনা পাঠান হবে রাজ্য সরকারকে। সেখান থেকে সবুজ সংকেত পাওয়া গেলেই পুনরায় শুরু হবে শুটিং।  

আরও পড়ুন: চলে গিয়েও বারে বারে ফিরে আসে ‘ঋতু’রাজ

কিন্তু তার আগেই রাতারাতি শুটিং শুরুর নির্দেশ আসায় কিছুটা আতান্তরে টলিপাড়া। এত কম সময়ের ব্যবধানে কীভাবে শুটিং শুরু হবে, কীভাবেই বা সুরক্ষাবিধি মানা হবে তা নিয়ে উঠছে নানা প্রশ্ন। পাশাপাশি গত আড়াই মাস যাবত টলিপাড়ার বিভিন্ন স্টুডিয়ো বন্ধ থাকায় তাতে নোংরা জমেছে। আমপানের ফলে ক্ষয়ক্ষতিও হয়েছে কম-বেশি। তাই একদিনে সব পরিষ্কার করে ১ জুন থেকে শুটিং শুরু করা যে কার্যত অসম্ভব সে ব্যাপারে সহমত আর্টিস্ট ফোরাম, প্রোডিউসারস গিল্ড, ফেডারেশন সহ বাদবাকি সংগঠন গুলিও।

তাহলে? আর্টিস্ট ফোরামের তরফে এ ব্যাপারে জানান হয়, “এ রকম যে একটি নির্দেশ আসবে তা একেবারেই আমাদের অজানা ছিল। পরশু থেকে কী ভাবে শুটিং শুরু হবে তা আমাদের অজানা। তা ছাড়া স্টুডিয়োগুলি এত দিন বন্ধ থাকায় শুটিং করার অবস্থাতেও নেই। পরশু থেকে শুটিং শুরু করলেও কীভাবে সুরক্ষাবিধি মানা হবে সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও গাইডলাইন তৈরি হয়নি। এই বিষয়ে বাকি সংগঠনগুলির সঙ্গেও আলোচনা করা প্রয়োজন।’’

আরও পড়ুন: কিছু সময়ের অপেক্ষা ইরফান, দেখা হবে, অনেক কথা হবে: সুতপা

অন্যদিকে অ্যাসোসিয়েশন অব টেলিভিশন প্রোডিউসারস এর সভাপতি একইসঙ্গে পরিচালক শৈবাল বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “পরশু দিন থেকে কোনওভাবেই শুটিং শুরু করা সম্ভব নয়। সরকার থেকে ছাড়পত্র মিলেছে। কিন্তু আগে যা ঠিক হয়েছিল সে ভাবেই ২ তারিখ আবার ৪ তারিখ আমরা সবাই মিলে মিটিংয়ে বসব। সেখানেই সবার সম্মতিতে সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর শুটিং শুরু হবে।“

একই সুর শোনা গেল লেখক, চিত্রনাট্যকার এবং প্রযোজনা সংস্থা ম্যাজিক মোমেন্টসের অন্যতম কর্ণধার লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের গলাতেও। “পরশুদিন থেকে কিছুতেই শুটিং শুরু করা যাবে না, আগে মিটিংয়ে সুরক্ষাবিধি নিয়ে সিদ্ধান্ত হোক, তারপরেই হয়তো আগামী সাত-আট জুন নাগাদ শুটিং শুরু হলেও হতে পারে’’, বলেন লীনা।

শুটিংয়ের প্রস্তুতি নিয়ে যে খানিক সময় লাগবে সে কথার রেশ টেনেই পরিচালক রাজ চক্রবর্তী বলেন, “অনেক দিন ধরেই কী ভাবে সুরক্ষা মেনে কাজ চালু করা যেতে পারে তা নিয়ে বিভিন্ন সংগঠন আলোচনা চালাচ্ছে। এর মধ্যেই সবাই মিলে বসে একটা সিদ্ধান্তে আসব আমরা”। নিজে যে পরশুদিন থেকে শুটিং শুরু করতে পারবেন না তা জানালেন রাজ। 

সব মিলিয়ে টলিপাড়া এখন উন্মুখ স্টুডিয়োর দরজা খোলার অপেক্ষায়।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন