Advertisement
০৪ অক্টোবর ২০২২
Tonni Laha Roy

Tonni: ‘মিঠাই’-এর ‘তোর্সা’ও এ বার বড়পর্দায়! সৌরভ-দর্শনার সঙ্গে ‘হৃদয়পুর’ ছবিতে

‘মিঠাই’-এর জনপ্রিয়তার জাদু। বড়পর্দায় ‘তোর্সা’ ওরফে তন্বী লাহা রায়। সৌমজিত আদকের ছবি ‘হৃদয়পুর’-এর ‘মধু’ চরিত্রে তিনি!

‘মিঠাই’-এর ‘তোর্সা’ এ বার বড়পর্দায় ‘মধু’?

‘মিঠাই’-এর ‘তোর্সা’ এ বার বড়পর্দায় ‘মধু’?

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৯ অগস্ট ২০২২ ১৮:২৪
Share: Save:

দু’বার বড়পর্দায় তন্বী লাহা রায়। এর আগে রাজা চন্দের ‘আজব প্রেমের গল্প’-তে শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়, বনি সেনগুপ্তর সঙ্গে তিনি। তন্বীর কপাল মন্দ। অতিমারির কারণে ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি। প্রথম সারির ওয়েব প্ল্যাটফর্মে দেখানো হয়েছিল। মঙ্গলবারের টাটকা খবর, ধারাবাহিক ‘মিঠাই’-এর জনপ্রিয়তা ফের ‘তোর্সা’কে পৌঁছে দিতে চলেছে বড়পর্দায়। সৌমজিৎ আদকের নতুন ছবি ‘হৃদয়পুর’-এ সৌরভ দাস, দর্শনা বণিকের সঙ্গে থাকছেন তিনিও। ‘তন্বী’র নতুন রূপ ‘মধুমিতা’, সংক্ষেপে ‘মধু’! ত্রিকোণ প্রেম থেকে ধূসর স্তর— চরিত্রে সব উপাদান রয়েছে। আর রয়েছেন বন্ধু, সহ-অভিনেতা সৌরভ, বন্ধু-পরিচালক সৌমজিৎ। এ সবের আকর্ষণেই অভিনেত্রী রাজি।

তৃণা সাহা, শ্বেতা ভট্টাচার্যর পরে বড়পর্দার নায়িকার ভূমিকায় ছোটপর্দার তন্বীও। কিন্তু ধারাবাহিকের নায়কেরা তো ডাক পাচ্ছেন না! এটা কেন? আনন্দবাজার অনলাইনের প্রশ্নের জবাবে তন্বীর রসিকতা, ‘‘ছোটপর্দা নারীপ্রধান। ধারাবাহিকের কেন্দ্রেও মহিলা চরিত্র। তাকে কেন্দ্র করেই গল্প এগোয়। তারই সুফল এটা!’’ তার পরেই সজাগ বক্তব্য, ছোটপর্দায় সাধারণত ছুটি পাওয়া যায় না। প্রয়োজনে রবিবারেও কাজ করতে হয়। ফলে, অন্য কাজের জন্য সময় বের করা খুবই মুশকিল। সময়ের অভাবেই চাইলেও ছোটপর্দার নায়কেরা বড়পর্দার নায়ক হয়ে উঠতে পারছেন না।

একই কাজ তন্বী কিন্তু সুন্দর সামলাচ্ছেন। একই সঙ্গে ছোট এবং বড়পর্দার শ্যুট সারছেন। তাঁর কথায়, চলতি মাস জুড়ে ছবির শ্যুট চলবে। এখনও গুরুত্বপূর্ণ শটগুলোই বাকি। কী করে দু’দিকেই সমান মনোযোগ দিচ্ছেন অভিনেত্রী? তা হলে কি সত্যিই ‘মিঠাই’ শেষ হয়ে যাচ্ছে? তন্বীর দাবি, ‘‘টিআরপি-তে সাময়িক পিছিয়ে পড়া। মিঠাইয়ের বুকে গুলি লাগা। দুইয়ে মিলে এই গুঞ্জন ছড়িয়েছিল। সবটাই ভুয়ো রটনা। ধারাবাহিক শেষ হচ্ছে না। ছবির শ্যুটও চলছে। সে ভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। ফলে, অসুবিধে হচ্ছে না।’’ পাশাপাশি তন্বী ধন্যবাদ জানিয়েছেন চ্যানেল কর্তৃপক্ষকেও। তাঁর মতে, জি বাংলা, ধারাবাহিকের পরিচালক কৃশাণু সহযোগিতা না করলে সত্যিই তিনি একসঙ্গে দুটো কাজ সামলাতে পারতেন না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.