×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

এক যুগের প্রেম পেরিয়ে বরুণ ধবনের দুলহানিয়া নতাশা, মুহূর্তে ভাইরাল বিয়ের ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৫ জানুয়ারি ২০২১ ০১:৪১
সাতপাঁকে বাঁধা পরলেন বরুণ-নাতাশা।

সাতপাঁকে বাঁধা পরলেন বরুণ-নাতাশা।
ছবি বরুণ ধওয়ানের ইনস্টাগ্রাম থেকে।

'শাদি অফ দ্য ইয়ার' না হোক, বছরের শুভ শুরুয়াত তো বলাই যায় একে। ২০ বছরের বন্ধুত্ব, ১৪ বছরের প্রেমের পর অবশেষে বিয়েটা সেরেই ফেললেন অভিনেতা বরুণ ধবন ও তাঁর কলেজের সময়ের প্রেমিকা ফ্যাশন ডিজাইনার নতাশা দলাল।

রাখ ঢাক করেও অনেক খবর প্রকাশ হয়েই পড়েছিল বরুণ-নতাশার বিয়ের ব্যাপারে। কবে বিয়ে কখন বিয়ে সব কিছু। ২৪ জানুয়ারি দুপুর থেকেই তাই বরুণ-নতাশার বিয়ের ছবি দেখতে মুখিয়ে ছিল সমাজ মাধ্যম। শেষে রাত এগারোটা নাগাদ ভক্তদের তুষ্ট করলেন অভিনেতা। সামাজিক পাতায় বিয়ের ছবি প্রকাশ করলেন। রূপালি পোশাকে বরুণ আর নতাশার সাতপাঁকে বাঁধা পড়ার দৃশ্য। বিবরণে অভিনেতা লিখলেন, ‘আজীবন ভালোবাসা এই মাত্র পূর্ণতা পেল।’

আরবসাগরের উপকূলবর্তী অলিবাগে, সাসওয়ান হ্রদের লাগোয়া পাম গাছে ঘেরা এক রিসর্টে পাকাপোক্ত সম্পর্কের ভিত গাঁথলেন দুজনে। সূর্যাস্তকে সাক্ষী রেখে। পরিবার, পরিজন আর মাত্র কয়েকজন ঘনিষ্ঠ বন্ধুকে পাশে নিয়ে।

Advertisement

অতিমারি আবহে যখন চারপাশে খারাপ খবরের ছড়াছড়ি, তখন প্রিয় অভিনেতার বিয়ে, দীর্ঘ প্রেমের পরিণতি, বছরের শুরুটা ভালো করে দেয় না কি?


বলিউডের তরুণ প্রজন্মের অভিনেতাদের মধ্যে সফলতম বলাই যায় বরুণ কে। কয়েক বছরের অভিনয় জীবনে বাণিজ্যিক হিট ছবি তাঁর নেহাত কম নয়। ভক্ত সংখ্যাও বিপুল। কোটি কোটি হৃদয়ে ঢেউ তোলেন তিনি। তাঁর বিয়ের প্রতি মুহূর্তের খবর জানতে চাইবে মানুষ তাতে অস্বাভাবিক কিছু নেই।

তবু বিয়ে নিয়ে ধবন পরিবারের অতিরিক্ত রাখঢাক মাঝে মধ্যেই প্রশ্ন তুলছিল খবরটির সত্যতা নিয়ে। বিগত কিছুদিন ধরেই উঠে আসছিল নানা খবর, জল্পনা। শেষে রবিবার রাতে সব চর্চার অবসান ঘটালেন বরুণ নিজেই।

শোনা যাচ্ছিল, রবিবার সন্ধ্যায় দেখা দেবেন নবদম্পতি। সদ্য বিবাহিত অভিনেতা বরুণ ধবন ও তাঁর ফ্যাশন ডিজাইনার স্ত্রী নতাশা দলালের বিয়ের ছবি দেখতে দুপুর থেকেই মুখিয়ে ছিলেন নেটাগরিকরা। শেষে সন্ধে পেরিয়ে রাতে গিয়ে দেখা মিলল দুজনের। বিয়ে শেষে ছবিশিকারীদের লেন্সবন্দি হলেন দুজনে। সমাজ মাধ্যমেও দিলেন ছবি।

সকাল থেকেই টানা টুইটারে ট্রেন্ডিং তালিকার প্রথম তিনে ছিল বরুণ নতাশার বিয়ে। সকাল থেকে বরুণ-নতাশার বিয়ের আসরে বাইরে ভিড় করেছিলেন পাপারাৎজিরাও। তবে রিসর্টের সামনে অতিথিদের যাওয়া আসা, গেটের ফাঁক ফোকর থেকে পাওয়া ছোট খাট মুহূর্ত ছাড়া আর কিছুই হাতে আসেনি তাঁদের। মাঝে ডিজাইনার মণীশ মালহোত্র, পরিচালক কুনাল কোহলি নিজেদের সামাজিক মাধ্যমের পাতায় পোস্ট করেছিলেন কিছু ছবি। তাতে তাঁদের পোশাক আশাকের খবর জানা গেলেও বাকি খবর পাওয়া যায়নি।

অতিথি হিসাবে হাজির ছিলেন করণ জোহর। বিকেল চারটে নাগাদ সাদা কালো ডিজাইনার ট্র্যাক স্যুট পরে ‘দ্য ম্যানসন হাউজ’-এ এসে পৌঁছন তিনি। বরুণের প্রিয় বান্ধবী জোয়া মোরানিও সন্ধে ছ’টা নাগাদ নীল-সোনালি লেহেঙ্গায় সেজে হাজির হন বিয়ের আসরে। তবে এটুকুই। এর বেশি আর কোনও অতিথিকে দেখা যায়নি।

আগেই ঠিক ছিল গোধূলি লগ্নে বিয়ে করবেন বরুণ-নতাশা। সেই জন্যই বেছে নেওয়া আলিবাগের সাসওয়াল হ্রদের লাগোয়া এই রিসর্টকে। দুপুর ২টো নাগাদ পুরোহিতকে ঢুকতে দেখা যায় রিসর্টে। তারও কিছুক্ষণ পর ভিতর থেকে পাওয়া যায় ঢোলের আওয়াজ। একদম পাঞ্জাবি ঐতিহ্য মেনে বিয়ে হয়েছে বরুণ নতাশার। এই রীতিতে বিয়েতে নাচগানের বড় ভূমিকা আছে। বিভিন্ন সূত্রে খবর ছিল সেই নাচগানের অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন করণ জোহর।

Advertisement