Advertisement
১৫ জুন ২০২৪
Fake News

বরকে ছাড়া এক মুহূর্তও নয়, স্বামীর নামে কপালে ট্যাটু করালেন মহিলা! ভুয়ো খবর

সম্প্রতি এক স্ত্রী তাঁর স্বামীকে চমকে দেওয়ার জন্য এমন কাণ্ড করলেন যা দেখে স্তম্ভিত নেটপাড়া। কোথায় ঘটল এমন ঘটনা?

tattoo

একেই কি বলে ‘টুরু লভ’? ছবি: ইনস্টাগ্রাম

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
বেঙ্গালুরু শেষ আপডেট: ২১ মে ২০২৩ ১৬:৫৩
Share: Save:

স্বামীর নামে কপালে ট্যাটু করাচ্ছেন মহিলা। সমাজমাধ্যমে একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পর অন্যান্য সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের মতো আনন্দবাজার অনলাইনেও খবরটি প্রকাশিত হয়েছিল। কিন্তু ‘বুম লাইভ’-এর ‘ফ্যাক্ট চেক’(Fact Check)-এ গোটা ঘটনাটিই ভুয়ো (Fake news) বলে ধরা পড়েছে। সংবাদমাধ্যমটি ওই মহিলার সঙ্গে কথা বলে। ওই মহিলা তাদের জানিয়েছেন, পুরো ভিডিয়োটাই সাজানো। আনন্দবাজার অনলাইন এই ভুয়ো খবর (Fake News) প্রকাশ করার জন্য সমস্ত পাঠকের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। রবিবার যে খবরটি প্রকাশিত হয়েছিল তা অবিকৃত অবস্থায় নীচে রইল।

বর্তমান প্রজন্মের কাছে ট্যাটু ‘স্টাইল স্টেটমেন্ট’। কেউ কেউ শরীরটাকেই ক্যানভাসে পরিণত করছেন, কেউ আবার ঘাড়ে, হাতে বা বাহুতে, কখনও বিভিন্ন নকশায়, কখনও বা প্রেমিক-প্রেমিকার নামে ট্যাটু করাচ্ছেন।

প্রেমিকের নামে হাতে, পিঠে, বুকে ট্যাটু করিয়েছেন এমন অনেকেই আছেন। ট্যাটু করিয়ে আবার সেই ট্যাটু মুছে ফেলেছেন এমন উদাহরণও কম নয়। তবে সম্প্রতি এক স্ত্রী তাঁর স্বামীকে চমকে দেওয়ার জন্য এমন কাণ্ড করলেন, যা দেখে স্তম্ভিত নেটপাড়া! বেঙ্গালুরুর এক মহিলা তাঁর স্বামীর নামে কপালে ট্যাটু করালেন।

বেঙ্গালুরুর এক ট্যাটু পার্লার সম্প্রতি তাদের ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো ভাগ করে নিয়েছে। যেখানে দেখা গিয়েছে কপালে বরের নামে ট্যাটু করাচ্ছেন ওই মহিলা। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে প্রথমে মহিলার কপালে ‘সতীশ’ লিখে দিলেন ট্যাটুশিল্পী। তার পরেই শুরু হল ট্যাটু করার কাজ। যেহেতু কপালে চামড়া মোলায়েম হয়, তাই বেশ যন্ত্রণা সহ্য করেই স্বামীর নামের ট্যাটু করাতে হয়েছে ওই মহিলাকে। ভিডিয়োর ক্যাপশনে লেখা ‘‘ট্রু লভ!’’

এই ভিডিয়োটি ভাইরাল হওয়ার পরেই নেটপাড়ায় শুরু হয় চর্চা। একজন লিখেছেন, ‘‘এই জন্যই আমাদের দেশে শিক্ষার এত প্রয়োজন।’’ আর এক জন লিখেছেন, ‘‘সমাজমাধ্যমে একটা ডিজ়লাইক বাটন হলে খুব ভাল হত!’’ কেউ আবার লিখেছেন, ‘‘এই কাজ বোকামি ছাড়া আর কিছুই নয়। প্রকৃত ভালবাসায় কোনও প্রমাণের প্রয়োজন পড়ে না। একে অপরের প্রতি যত্ন, স্নেহ ও সম্মানের মাধ্যমেই তা প্রকাশ পাবে।’’ ভিডিয়োটির সত্যতা অবশ্য যাচাই করেনি আনন্দবাজার অনলাইন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

tattoo bengaluru
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE