Advertisement
১০ ডিসেম্বর ২০২২
Dehydration

ORS: কী ভাবে বাড়িতেই বানাবেন ওআরএস? কারা খাবেন, কারা খাবেন না

দেহের প্রয়োজনীয় জল ও খনিজলবণের ভারসাম্য বজায় রাখতে সারা পৃথিবীতেই রোগীকে ওআরএস খাওয়ানোর প্রচলন রয়েছে।

ওআরএস বানানোর প্রণালী

ওআরএস বানানোর প্রণালী ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২২ ১৬:৪০
Share: Save:

২৯ জুলাই বিশ্ব ওআরএস দিবস। ওআরএস-এর পুরো কথা ‘ওরাল রিহাইড্রেশন সলিউশন’। আন্ত্রিকের সমস্যায় দেহে জলশূন্যতার সমস্যা দেখা দিতে পারে। বেরিয়ে যায় প্রয়োজনীয় লবণ ও শর্করাও। দেহের প্রয়োজনীয় জল ও খনিজ লবণের ভারসাম্য বজায় রাখতে সারা পৃথিবীতেই রোগীকে ওআরএস খাওয়ানোর প্রচলন রয়েছে।

Advertisement

কারা খাবেন?

আন্ত্রিকের সমস্যা, জলশূন্যতা বা ডিহাইড্রেশন ও বমি হচ্ছে এমন রোগীদের সাধারণত এই দ্রবণ দেওয়া হয়।

কারা খাবেন না?

Advertisement

ডায়াবিটিস, কিডনির সমস্যা, উচ্চ রক্তচাপ ও হার্টের সমস্যা রয়েছে এমন রোগীদের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে ওআরএস খাওয়ার সময়। ওআরএসে থাকে শর্করা ও সোডিয়াম, কাজেই অনিয়ন্ত্রিত প্রয়োগে রক্তে শর্করার পরিমাণ বেড়ে যেতে পারে, অতিরিক্ত সোডিয়ামে রক্তচাপের সমস্যা বেড়ে যেতে পারে। কাজেই ওআরএস খাওয়ার আগে পরামর্শ নিতে হবে চিকিৎসকের।

প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

কী ভাবে বানাবেন?

১ লিটার ওআরএস দ্রবণ তৈরির প্রণালী

১। পরিশুদ্ধ জল: ১ লিটার বা ৫ কাপ (প্রতিটি কাপ প্রায় ২০০ মিলিলিটার জল ধরে এই হিসাবে)

২। চিনি: ছয় চা চামচ

৩। লবণ: চা চামচের আধ চামচ

তিনটি উপকরণ মিশিয়ে চিনি দ্রবীভূত না হওয়া পর্যন্ত মিশ্রণটি নাড়ুন। পুরোপুরি দ্রবীভূত হয়ে গেলে অল্প অল্প করে পান করুন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.