Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২
Fake Notes

অ্যাম্বুল্যান্সে থরে থরে ২,০০০-এর বান্ডিল দেখে থ পুলিশ, নোটে লেখা ‘রিভার্স ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া’!

পুলিশ সুপার হিতেশ জয়সর জানিয়েছেন, গুনে-গেঁথে দেখা যায়, রয়েছে ৬টি কাগজের বাক্সে মোট ১,২৯০ টি নোটের বান্ডিল। যার মোট অর্থমূল্য ২৫ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা।

থরে থরে দু’হাজারের নোট!

থরে থরে দু’হাজারের নোট! ছবি— এএনআই।

সংবাদ সংস্থা
সুরত শেষ আপডেট: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:০৩
Share: Save:

গোপন সূত্রে খবর ছিল। অ্যাম্বুল্যান্স বোঝাই টাকা যাচ্ছে। সূত্র মারফৎ খবর পেয়ে দৌড়য় পুলিশ। থামানো হয় অ্যাম্বুল্যান্স। দরজা খুলে হতবাক খাকি উর্দি। থরে থরে সাজানো ২,০০০ টাকার নোট। গুনে গেঁথে দেখা গেল রয়েছে মোট ২৫ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা। যদিও সব নোটের গায়েই লেখা, রিভার্স ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া!

Advertisement

আজব এই ঘটনাটি ঘটেছে গুজরাতের সুরতে। গোপন সূত্রে খবর পায় কামরেজ থানা, অ্যাম্বুল্যান্স বোঝাই নোট যাচ্ছে। সেই মতো আমদাবাদ-মুম্বই রোডের উপর ওত পেতে বসে ছিল পুলিশ। একটি অ্যাম্বুল্যান্স আসতে দেখেই সেটিকে থামানো হয়। চালক ও খালাসিকে জিজ্ঞাসাবাদ করার পর সন্দেহ ঘনীভূত হয় পুলিশের। চালককে পিছনের দরজা খুলতে বলেন এক পুলিশ কর্মী। দরজা খুলতেই চক্ষু চড়কগাছ পুলিশের। থরে থরে সাজানো রয়েছে দু’হাজার টাকার নোট। পুলিশ সুপার হিতেশ জয়সর জানিয়েছেন, গুনে-গেঁথে দেখা যায়, রয়েছে ৬টি কাগজের বাক্সে মোট ১,২৯০ টি নোটের বান্ডিল। যার মোট অর্থমূল্য ২৫ কোটি ৮০ লক্ষ টাকা। কিন্তু সব কটি নোটের গায়েই লেখা রয়েছে রিভার্স ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। অথচ সেখানে তো লেখা থাকার কথা রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া! বান্ডিলের তলায় লেখা রয়েছে, এই নোট শুধুমাত্র সিনেমার শ্যুটিংয়ের কাজে ব্যবহারের জন্যই।

সাম্প্রতিক অতীতে কখনও বাংলা আবার কখনও উত্তরপ্রদেশ, কখনও মহারাষ্ট্র। থরে থরে নোট অনেক দেখা গিয়েছে। সে সবই ছিল আসল। কিন্তু বান্ডিল বান্ডিল নকল নোট, যা শুধুমাত্র সিনেমার শ্যুটিংয়ে ব্যবহার হয়, সেই নোট এল কোথা থেকে?

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.