Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
CDS

বিপিন রাওয়তের মৃত্যুর ন’মাস পরে উত্তরসূরি নিয়োগ কেন্দ্রের, নয়া সেনা সর্বাধিনায়ক অনিল চৌহান

গত ৪ ডিসেম্বর তামিলনাড়ুতে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় সিডিএস জেনারেল বিপিন রাওয়তের মৃত্যু হয়েছিল। প্রায় ন’মাস পরে তাঁর উত্তরসূরি মনোনীত করল নরেন্দ্র মোদী সরকার।

জেনারেল রাওয়ত এবং লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌহান।

জেনারেল রাওয়ত এবং লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌহান। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৯:৪৬
Share: Save:

ভারতের পরবর্তী সেনা সর্বাধিনায়ক (চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বা সিডিএস) হচ্ছেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) অনিল চৌহান। বুধবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে প্রয়াত জেনারেল বিপিন রাওয়তের উত্তরসূরি হিসাবে তাঁর নাম ঘোষণা করা হয়েছে।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌহান ২০২১ সালের মে মাসে পূর্বাঞ্চলীয় সেনা কমান্ডের প্রধানের পদ থেকে অবসর নিয়েছিলেন। উত্তর-পূর্ব ভারত এবং কাশ্মীরের সন্ত্রাস দমনে ‘বিশেষজ্ঞ’ সেনার অন্দরে তাঁর পরিচিতি রয়েছে। সামরিক বিষয়ক সচিবের তরফে জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘পরবর্তী নির্দেশিকা পর্যন্ত লেফটেন্যান্ট জেনারেল চৌহান সিডিএস পদে বহাল থাকবেন।’

নিয়োগের নয়া মাপকাঠি ঘোষণা করল কেন্দ্র। শুধু সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখার (স্থল, নৌ এবং বায়ুসেনা) প্রধানরাই নন, তাঁদের পরবর্তী স্তরের আধিকারিকরাও এ বার সিডিএস পদের যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন বলে মঙ্গলবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

গত ৪ ডিসেম্বর তামিলনাড়ুতে হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় সিডিএস বিপিন রাওয়তের মৃত্যু হয়েছিল। প্রায় ন’মাস পরে তাঁর উত্তরসূরি মনোনয়ন করল নরেন্দ্র মোদী সরকার। প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালে সেনা বিধি সংশোধন করে সেনা সর্বাধিনায়ক পদ সৃষ্টি করেছিল মোদী সরকার। সেই বিধি অনুযায়ী সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখার প্রধান বা সদ্য অবসরপ্রাপ্ত প্রধানদের (চারতারা বিশিষ্ট সেনা আধিকারিক) ওই পদের জন্য বিবেচনার কথা বলা হয়েছিল। অর্থাৎ, স্থলসেনার জেনারেল, নৌসেনার অ্যাডমিরাল এবং বায়ুসেনার এয়ার চিফ মার্শাল স্তরের আধিকারিককে তিন বাহিনীর সংযোগ রক্ষাকারী ‘সিঙ্গল পয়েন্ট অ্যাডভাইসর’ হিসেবে নিযুক্ত করাই ছিল বিধি।

২০২০ সালের জানুয়ারিতে ওই বিধি মেনেই সেনা সর্বাধিনায়ক পদে নিয়োগ করা হয়েছিল, স্থলসেনার প্রাক্তন প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়তকে। কিন্তু চলতি বছরের জুন মাসে সিডিএস পদে নিয়োগের নয়া মাপকাঠি ঘোষণা করে কেন্দ্র। নয়া বিধিতে বলা হয়, শুধু সশস্ত্র বাহিনীর তিন শাখার (স্থল, নৌ এবং বায়ুসেনা) প্রধানরাই (যাঁরা চারতারা জেনারেল পদমর্যাদার) নন, তাঁদের পরবর্তী স্তরের আধিকারিকরাও (তিনতারা জেনারেল পদমর্যাদার) এ বার সিডিএস পদের যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন।

সেই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, স্থলসেনার লেফটেন্যান্ট জেনারেল, নৌসেনার ভাইস অ্যাডমিরাল এবং বায়ুসেনার এয়ার মার্শাল স্তরের (তিন-তারা বিশিষ্ট সেনা আধিকারিক) নির্দিষ্ট কিছু পদে কর্মরত বা সদ্য অবসরপ্রাপ্ত আধিকারিকেরাও সিডিএস পদের জন্য যোগ্য হিসেবে বিবেচিত হবেন। তবে বয়ঃসীমা হতে হবে ৬২ বছরের মধ্যে। সেই বিধি মেনেই নিযুক্ত হলেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অবসরপ্রাপ্ত) চৌহান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE