Advertisement
১৪ জুলাই ২০২৪
Andhra Pradesh Incident

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শিশুকে নিয়ে দিশাহারা বাবা-মা, পথেই হৃদ্‌রোগ! চিকিৎসকের তৎপরতায় বাঁচল প্রাণ

শিশুটি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পর তাকে নিয়ে ছোটাছুটি করছিলেন দিশাহারা বাবা-মা। পথে তা দেখতে পেয়ে এগিয়ে যান এক চিকিৎসক। তাঁর উপস্থিত বুদ্ধি এবং তৎপরতায় শিশুটির প্রাণ বেঁচেছে।

—প্রতীকী চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৮ মে ২০২৪ ০৯:৫৬
Share: Save:

ছ’বছরের শিশুকে নিয়ে দিশাহারা হয়ে পড়েছিলেন বাবা-মা। শিশুটি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ায় তাকে নিয়ে হন্যে হয়ে ছোটাছুটি করছিলেন তাঁরা। কাছেপিঠে কোনও হাসপাতাল না থাকায় শিশুটির বাঁচার আশা প্রায় ছিল না বললেই চলে। শিশুটিকে কোলে নিয়ে তার বাবা-মাকে দৌড়দৌড়ি করতে দেখে এগিয়ে যান এক মহিলা। তিনি পেশায় চিকিৎসক। রাস্তার মাঝেই তাঁর তৎপরতায় প্রাণ বেঁচেছে ওই শিশুর।

ঘটনাটি অন্ধ্রপ্রদেশের বিজয়ওয়াড়ার অজয়প্পা নগর এলাকার। সেখানেই আচমকা বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়েছিল ওই শিশু। তাকে কোলে নিয়ে চিকিৎসকের খোঁজে ছুটছিলেন তার বাবা এবং মা। সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন চিকিৎসক রাবালিকা। তিনি ওই সময়ে ওই রাস্তা দিয়েই যাচ্ছিলেন। শিশুটির অবস্থা দেখে তার দিকে এগিয়ে যান। বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার পর পথেই হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছিল ওই শিশু। তার শরীর নিস্তেজ হয়ে পড়েছিল। রাস্তাতেই তাকে শুইয়ে দেন চিকিৎসক।

এর পর ওই শিশুর বুকে জোরে জোরে চাপ দিতে শুরু করেন চিকিৎসক, ডাক্তারি পরিভাষায় যাকে বলে কার্ডিয়ো পালমোনারি রিসাসিটেশন (সিপিআর)। বেশ কিছু ক্ষণ ধরে এই প্রক্রিয়া চালানোর পর অবশেষে শিশুটি সাড়া দেয়। দ্রুত তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। শিশুটি বর্তমানে সুস্থ আছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

শিশুটিকে রাস্তায় শুইয়ে সিপিআরের মাধ্যমে তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন চিকিৎসক, এই ভিডিয়ো সমাজমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ওই চিকিৎসকের তৎপরতার প্রশংসা করেছেন সকলে। যদিও সেই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার অনলাইন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Andhra Pradesh doctor treatment CPR
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE