Advertisement
০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Anil Deshmukh

Anil Deshmukh: দুর্নীতির অভিযোগ, মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখকে গ্রেফতার ইডি-র

অবৈধ ভাবে আর্থিক লেনদেন করা ছাড়াও মুম্বইয়ের শীর্ষ পুলিশকর্মীর মাধ্যমে তোলা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে দেশমুখের বিরুদ্ধে।

অনিল দেশমুখ

অনিল দেশমুখ ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ০২ নভেম্বর ২০২১ ০৩:২৯
Share: Save:

আর্থিক দুর্নীতির অভিযোগে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখকে গ্রেফতার করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। এনসিপি-র এই রাজনীতিককে সোমবার মুম্বইয়ের দফতরে তলব করেছিল তারা। দেশমুখকে প্রায় ১২ ঘণ্টা ধরে লাগাতার জিজ্ঞাসাবাদ করেন ইডি-র আধিকারিকেরা। তবে জিজ্ঞাসাবাদে সন্তুষ্ট না হওয়ায় রাতেই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

Advertisement

অবৈধ ভাবে আর্থিক লেনদেন করা ছাড়াও মুম্বইয়ের শীর্ষ পুলিশকর্মীর মাধ্যমে তোলা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে দেশমুখের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগ ঘিরে বিতর্ক শুরু হতেই চলতি বছরে মহারাষ্ট্র সরকারে নিজের পদ থেকে ইস্তফাও দেন তিনি। তদন্ত শুরুর পর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইডি-র সমন এড়াতে বম্বে হাই কোর্টেরও দ্বারস্থ হয়েছিলেন দেশমুখ। তবে শুক্রবার তা খারিজ করে দেয় আদালত। তোলা আদায়ের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছেন তিনি। ৭১ বছর বয়সি এই রাজনীতিক সোমবার একটি ভিডিয়োবার্তায় দাবি করেন, ‘‘আমার বিরুদ্ধে আর্থিক দুর্নীতির যাবতীয় অভিযোগই ভুয়ো।’’ তবে তাতেও শেষরক্ষা হয়নি।

প্রসঙ্গত, শিল্পপতি মুকেশ অম্বানীর মুম্বইয়ের বাড়ির অদূরে বোমাতঙ্কের ঘটনার তদন্তকারী প্রাক্তন পুলিশকর্তা পরমবীর সিংহের অভিযোগ ছিল, পুলিশকে ব্যবহার করে প্রতি মাসে ১০০ কোটি টাকা পর্যন্ত তোলা আদায় করেন দেশমুখ। এই অভিযোগে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেকেও চিঠি দিয়েছিলেন তিনি। ঘটনাচক্রে, বোমাতঙ্কের ঘটনার তদন্তভার থেকে সরিয়ে দেওয়ার কিছু দিনের মধ্যেই দেশমুখের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন পরমবীর। যদিও এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে পরমবীরের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করার হুমকি দিয়েছিলেন দেশমুখ। গোটা ঘটনায় উত্তাল হয়েছিল মহারাষ্ট্রের রাজনীতি।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.