Advertisement
০৩ মার্চ ২০২৪
ED raids against Congress leaders

ভোটের রাজস্থানে সক্রিয় ইডি, গহলৌত-পুত্রকে তলব! প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির ঠিকানায় হানা

প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা বিধায়ক গোবিন্দ সিংহ দোতাসরার ঠিকানায় তল্লাশি শুরু করেছে ইডি। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌতের পুত্র বৈভবকে।

অশোক গহলৌত এবংতাঁর পুত্র বৈভব।

অশোক গহলৌত এবংতাঁর পুত্র বৈভব। — ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
জয়পুর শেষ আপডেট: ২৬ অক্টোবর ২০২৩ ১২:২০
Share: Save:

আবার বিধানসভা ভোটের আগে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে সক্রিয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। কর্নাটকের পরে এ বার রাজস্থানে। বৃহস্পতিবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা বিধায়ক গোবিন্দ সিংহ দোতাসরা এবং দলের প্রথম সারির নেতা ওমপ্রকাশ হুদলার ঠিকানায় তল্লাশি অভিযান শুরু করেছেন কেন্দ্রীয় সংস্থাটির আধিকারিকেরা। অন্য দিকে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌতের ছেলে তথা কংগ্রেস নেতা বৈভব গহলৌতকে।

ইডি সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানাচ্ছে, দু’টি পুরনো মামলার সূত্র ধরেই মরুরাজ্যে ইডির এই তৎপরতা। সরকারি নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় বেআইনি আর্থিক লেনদেনের সন্ধান পেতেই গোবিন্দ এবং ওমপ্রকাশের একাধিক ঠিকানায় তল্লাশি হয়েছে। অন্য দিকে, বিদেশি মুদ্রা নিয়ন্ত্রণ আইন (ফেমা) লঙ্ঘনের অভিযোগে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করা হয়েছে গহলৌত-পুত্রকে। যদিও সব কিছু ছাপিয়ে সামনে চলে এসেছে বিজেপির রাজনৈতিক প্রতিহিংসার প্রশ্ন।

২০২০ সালে জয়পুরের দুই ব্যক্তি গহলৌত-পুত্রের বিরুদ্ধে ‘শিবনার হোল্ডিংস’ নামে একটি মরিশাস-ভিত্তিক কোম্পানির মাধ্যমে বেআইনি ভাবে অর্থ পাচারের অভিযোগ তুলেছিলেন। তাঁদের অভিযোগ ছিল, ২০১১ সালে বৈভব ওই কোম্পানির মাধ্যমে বেনামে ট্রাইটন হোটেলের ২,৫০০ শেয়ার কিনেছিলেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে বিজেপি সাংসদ কিরোরিলাল মিনা ইডির কাছে গহলৌত-পুত্রের বিরুদ্ধে তদন্তের আবেদন জানিয়েছিলেন। তিন বছর পরে বিধানসভা ভোটের মুখে সেই তদন্তে সক্রিয় হল ইডি।

অন্য দিকে, গত বছরের ডিসেম্বরে রাজস্থান পাবলিক সার্ভিস কমিশন (পিএসসি)-এর অন্তর্গত শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস ঘিরে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। এই মামলায় আগে বাবুলাল কাটারা এবং অনিল কুমার মীনা নামে পিএসসির দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। তদন্তের সেই সূত্র ধরেই গোবিন্দ এবং ওমপ্রকাশের জয়পুর, সিকার এবং মহুয়ার ঠিকানায় অভিযান চলছে বলে ইডি জানিয়েছে। প্রসঙ্গত, ওই দুই কংগ্রেস নেতাই এ বারের বিধানসভা ভোটে প্রার্থী হয়েছেন।

নরেন্দ্র মোদীর ন’বছরের প্রধানমন্ত্রিত্বে কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলির বিরুদ্ধে পক্ষপাতদুষ্ট আচরণের অভিযোগ উঠেছে বারে বারেই। গত মে মাসে কর্নাটকে বিধানসভা ভোটের কিছু দিন আগে বেআইনি আর্থিক লেনদেনের মামলায় ইডি নোটিস পাঠিয়েছিল প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি ডিকে শিবকুমারকে। রাজস্থানে বিধানসভা ভোট আগামী ২৫ নভেম্বর। তার আগে বিজেপির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেসের নেতাদের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার ইডি-র অভিযান ঘিরে উঠেছে প্রশ্ন।

গহলৌতের ভাইকে চলতি মাসেই সার দুর্নীতি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল ইডি। সে দিন গহলৌত এক্স হ্যান্ডলে লিখেছিলেন, ‘‘এই ঘটনাই প্রমাণ করছে রাজস্থানে কংগ্রেস জিততে চলছে।’’ বৃহস্পতিবার তাঁর পোস্ট— ‘‘রাজস্থানে মহিলাদের জন্য নতুন প্রকল্প চালু করেছে কংগ্রেস সরকার। তার পরেই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি গোবিন্দ সিংহের দোতাসারার বাড়িতে ইডির অভিযান। আমার পুত্র বৈভবকে ইডির সামনে হাজির হওয়ার জন্য সমন। বুঝতেই পারছেন, বিজেপি চায় না যে রাজস্থানের মহিলা, কৃষক এবং দরিদ্ররা কংগ্রেসের দেওয়া প্রকল্পের সুবিধা পান।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE